সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

খালেদা জিয়ার ভাষা সংযত হওয়া উচিত -হানিফ

স্টাফ রিপোর্টার : আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ বলেছেন, বিরোধী দলীয় নেত্রী হিসেবে খালেদা জিয়ার ভাষা সংযত হওয়া উচিত। তিনি চাঁদপুরে সোমবার বলেছেন, সরকারকে নাকি লেংড়া লুলা বানিয়ে দেবেন। তার ভাবা উচিত, সরকারকে লেংড়া বানানো মানে আমাদের যারা ভোট দিয়েছে তাদের সবাইকে লেংড়া বানানো। এমন ভাষা তার মতো বেহায়া ঝগড়াটে মহিলার মুখেই মানায়। খালেদা জিয়া ঝগড়াটে ও বেহায়া মহিলার মতো কথা বলছেন বলে মন্তব্য করেছেন।

গতকাল মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন  আইন প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট কামরুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এম এ আজিজ, সাংগঠনিক সম্পাদক সাঈদ খোকন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাজী সেলিম, প্রচার সম্পাদক আব্দুল হক সবুজ প্রমুখ।

হানিফ বলেন, ১৫ ফেব্রুয়ারি বঙ্গবন্ধু  এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ জনসভা করবে বলে জানান। এই জনসভার মাধ্যমে  '৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারি কিভাবে ভোট ডাকাতির মাধ্যমে খালেদা জিয়া দুই মাসের জন্য ক্ষমতায় এসেছিলেন তা জনসম্মুখে প্রকাশ করা হবে।

তিনি বলেন, মার্চ শুধু আওয়ামী লীগের মাস হিসেবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, এই মাস কাউকে ইজারা দেয়া হবে না। কারণ, এটি স্বাধীনতার স্বপক্ষ শক্তির মাস। এই মাসে কর্মসূচির নামে কাউকে জ্বালাও-পোড়াও করতে দেয়া হবে না হানিফ বলেন, খালেদা জিয়া ক্ষমতায় থাকাকালীন ১৪ জনকে হত্যা ও অর্ধশত সাংবাদিককে আহত করেছিলেন। এছাড়া তার সময়ে ২০০১ সাল থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত আওয়ামী লীগের ২৬ হাজার নেতা-কর্মীকে হত্যা করা হয়েছে ।

আইন প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট কামরুল ইসলাম আগামী ১২ মার্চ বিএনপির ঢাকা চলো কর্মসূচির সাধ ভালোভাবে মিটিয়ে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ৭ মার্চ শিখা চিরন্তনে আমরা এমন কর্মসূচি দেবো যে তাদের ঢাকায় আসার সাধ মিটে যাবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ