শনিবার ১১ জুলাই ২০২০
Online Edition

সোমালিয়ার সাহায্যার্থে ওয়ামি ও ওআইসির উদ্যোগ

রিয়াদ থেকে আরব নিউজ : রিয়াদভিত্তিক ওয়ার্ল্ড এসেম্বলি অব মুসলিম ইউথ- ওয়ামি এবং ওআইসিসহ কয়েকটি ইসলামী সাহায্য সংস্থা সোমবার লাইবেরিয়তে এক সভায় মিলিত হতে যাচ্ছে। সোমালিয়াসহ আফ্রিকার শৃঙ্গ অঞ্চলে বুভুক্ষ পীড়িত জনগণকে সাহায্য পৌঁছানোর আন্তর্জাতিক উদ্যোগে নেতৃত্ব দেয়ার উদ্দেশ্যে এই সভা অনুষ্ঠিত হবে। জাতিসংঘের কয়েকটি সংস্থাও বৈঠকে অংশ নেবে। মঙ্গলবার রাতে রিয়াদে এক সংবাদ সম্মেলনে ওয়ামির সেক্রেটারি জেনারেল সালেহ্ এস্ আলওহাইরি বলেন, মূলত সোমালিয়া, ইথিয়োপিয়া, জিবুতি ও কেনিয়ার উত্তরাঞ্চলসহ অস্তিত্ব রক্ষার সংগ্রামেরত অঞ্চলের ১ কোটির বেশি মানুষের জীবন রক্ষার জন্য এনজিওদের সঙ্গে নিয়ে সৌদি সাহায্য সংস্থাগুলো চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

রোববার রাজধানীতে আন্তঃধর্ম সংলাপ অনুষ্ঠানের আগে আল ওহাইবি সংবাদ সম্মেলনে ভাষণ দিচ্ছিলেন। অন্যদিকে আংকারা থেকে রয়টার্স জানায়, তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী তৈয়ব আর্দোগান বুধবার বলেন, আগামী কয়েকদিনে তিনি তার পরিবারসহ দুর্ভিক্ষপীড়িত সোমালিয়া সফর করবেন। দুর্দশাগ্রস্ত দেশটির দিকে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করাই হবে তার সফরের উদ্দেশ্য। চরম নিরাপত্তা ঝুঁকির অজুহাতে বিশ্বের নেতারা সোমালিয়া সফর করেন কম। কিন্তু আর্দোগান কোনো ঝুঁকি মানতে রাজি নন। তিনি বলেন, আফ্রিকার এই মানবিক বিপর্যয়ে দর্শক হয়ে বসে থাকা সম্ভব নয়। গত সপ্তাহান্তে মোগাদিসু থেকে ইসলামপন্থী যোদ্ধাদের পশ্চাদপসরণের পরবর্তীতে রাজধানী আরো বিপজ্জনক হয়ে উঠেছে বলে মনে করা হচ্ছে। সামরিক সংঘর্ষে বিজয় অর্জনে অসফল ইসলামপন্থী যোদ্ধারা আত্মঘাতি বোমা হামলার মতো গেরিলা পদ্ধতিতে রাজধানীতে গোপন হামলা বাড়িয়ে দিতে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে। সরকারি ও আফ্রিকান শান্তিরক্ষীরা স্বীকার করছেন যে, জঙ্গীরা পিছু হটে যাবার পরও রাজধানীর সমস্ত এলাকায় তাঁদের নিয়ন্ত্রণ নেই। সর্বশেষ মোগাদিসু সফর করেন গত বছর নবেম্বরে উগান্ডার প্রেসিডেন্ট ইয়োয়েরি মুসাবেনি। সোমালিয়ায় ও খরাপীড়িত পার্শ্ববর্তী অঞ্চলগুলোর সাহায্য বৃদ্ধির লক্ষ্যে ৫৭ সদস্য দেশের সংস্থা ওআইসি ইস্তাম্বুলে আগামী ১৭ আগস্ট একটি সভা ডাকতে যাচ্ছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আহমদ দাউদোগ্ল্ এই তথ্য তুলে ধরেন। ৫০ টন খাদ্য ও চিকিৎসা সামগ্রী ভর্তি দু'টি বিমান তুরস্ক গত সোমবার সোমালিয়ায় পাঠিয়েছে এবং জনগণের কাছ থেকে সাহায্য সামগ্রী সংগ্রহের জন্য সরকারি উন্নয়ন সংস্থা ও ধর্মীয় দফতরের সহযোগিতায় টার্কিস রেডক্রিসেন্ট কাজ করে যাচ্ছে। উল্লেখ্য, আর্দোদানের সহধর্মিনী এমিন গত বছর পাকিস্তানের বন্যাপীড়িত এলাকা পরিদর্শন করেছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ