মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০২৪
Online Edition

হাইকোর্টে ১৩ আইনজীবীর জামিন

স্টাফ রিপোর্টার: ঢাকা জজ কোর্ট এলাকায় বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের পদযাত্রা থেকে পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় ১৩ আইনজীবীর জামিন মঞ্জুর করেছেন হাইকোর্ট। তাদের ৮ সপ্তাহের আগাম জামিন দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ঢাকা মহানগর দায়রা আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম সুপ্রিম কোর্ট ইউনিটের তথ্য ও সম্প্রচার বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার একেএম এহসানুর রহমান।

এ-সংক্রান্ত বিষয়ে করা আবেদনের ওপর শুনানি নিয়ে গতকাল সোমবার হাইকোর্টের বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন এবং শওকত আলী চৌধুরীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আইনজীবীদের জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সভাপতি জয়নুল আবেদীন, সুপ্রিম কোর্ট বার এডহক কমিটির আহ্বায়ক মহসিন রশিদ, সিনিয়র আইনজীবী সুব্রত চৌধুরী ও আইনজীবী সৈয়দ মামুন মাহবুব।

জামিন পাওয়া আইনজীবীরা হলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার এএম মাহবুব উদ্দিন খোকন এবং বিএনপির আইন সম্পাদক ও বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের মহাসচিব ব্যারিস্টার কায়সার কামাল, বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য গাজী মো. কামরুল ইসলাম সজল, সুপ্রিম কোর্ট বারের সাবেক সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল, মোহাম্মদ আলী, মাহবুবুর রহমান খান, দেওয়ান হুমায়ূন কবির রিপন, আল ফয়সাল সিদ্দিকী, কাইয়ুম, শাহাদাত হোসেন আদিল, রাসেল আহমেদ, মহিদুল ইসলাম শিপন, আশরাফ জালাল খান মনন।

গত ১২ সেপ্টেম্বর রাতে বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের পদযাত্রা থেকে পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, দলটির আইনবিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার কায়সার কামালসহ ৬৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে পুলিশ। রাজধানীর কোতোয়ালি থানায় উপ-পরিদর্শক শাহাবুদ্দিন হাওলাদার বাদী হয়ে এ মামলা করেন।

ওইদিন ঢাকা জজ কোর্ট এলাকায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদত্যাগ দাবিতে বিএনপিসহ সরকারবিরোধী আইনজীবীদের পদযাত্রায় পুলিশের ব্যাপক লাঠিচার্জে অন্তত ৫০ জন আইনজীবী আহত হন।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর ঢাকা জজ কোর্ট এলাকায় বিএনপিপন্থি আইনজীবীদের পদযাত্রা থেকে পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে মামলায় ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ওমর ফারুক ফারুকী, খোরশেদ আলম মিয়াসহ ৪৯ জনকে জামিন দেন আদালত। ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আরাফাতুল রাকিবের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন তারা। শুনানি শেষে বিচারক পুলিশ রিপোর্ট দাখিল করা পর্যন্ত তাদের জামিন মঞ্জুর করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ