ঢাকা, বৃহস্পতিবার 1 June 2023, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০, ১১ জিলক্বদ ১৪৪৪ হিজরী
Online Edition

সু চি’র দল ভেঙে দেওয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের নিন্দা

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: অং সান সুচির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) বিলুপ্তির ঘোষণা দিয়েছে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নিয়ন্ত্রিত নির্বাচন কমিশন।

এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

সতর্ক করেছে বলেছে, এ পদক্ষেপ আরও অস্থিতিশীলতা ডেকে আনবে।

মিয়ানমারের জান্তা-স্ট্যাকড নির্বাচন কমিশন মঙ্গলবার ঘোষণা করেছে, ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসি সামরিক-খসড়া নির্বাচনী আইনের অধীনে পুনরায় নিবন্ধন করতে ব্যর্থ হওয়ায় দলটিসহ ৪০টি রাজনৈতিক দলকে বিলুপ্ত করা হয়েছে।

জান্তা নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রস্তুতির সময় এ পদক্ষেপটি নিয়েছে। বিরোধীরা বিশ্বাস করে, সামরিক শক্তিকে আরও শক্তিশালী করতে ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে সু চি’র নির্বাচিত সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করে সামরিক জান্তা।

মিয়ানমারের সাবেক নাম ব্যবহার করে যুক্তরাষ্ট্রের স্টেট ডিপার্টমেন্টের মুখপাত্র বেদান্ত প্যাটেল বলেছেন, ‘বার্মার সকল স্টেকহোল্ডারদের অংশগ্রহণ ব্যতীত যেকোনো নির্বাচন অবাধ বা সুষ্ঠু হবে না। এমনকি বিবেচিত হতে পারে না। সামরিক শাসনের ব্যাপক বিরোধিতার পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচনের দিকে সরকারের একতরফা ধাক্কা সম্ভবত অস্থিতিশীলতা বাড়িয়ে তুলবে। ’

তিনি বলেন, সু চি এনএলডির সহ-প্রতিষ্ঠা। ১৯৯০ সালের নির্বাচনে বিপুল বিজয় লাভ করেন যা পরবর্তীকালে তৎকালীন জান্তা কর্তৃক বাতিল হয়ে যায়।

মুখপাত্র বলেন, ‘মিয়ানমারের ওপর চাপ অব্যাহত রাখার অঙ্গীকার করেছে যুক্তরাষ্ট্র। গত সপ্তাহে তার সর্বশেষ পদক্ষেপে ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট জান্তাকে জেট জ্বালানি সরবরাহকারী যে কেউ মার্কিন নিষেধাজ্ঞার ঝুঁকি সম্পর্কে সতর্ক করেছিল। কিন্তু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মিয়ানমারের রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন তেল ও গ্যাস কোম্পানির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। প্রতিবেশী মার্কিন মিত্র থাইল্যান্ড এই পদক্ষেপের প্রভাব নিয়ে উদ্বিগ্ন। নির্বাচনের দিকে শাসনের একতরফা ধাক্কা সম্ভবত অস্থিতিশীলতা বাড়াবে। ’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ