ঢাকা, বৃহস্পতিবার 1 June 2023, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০, ১১ জিলক্বদ ১৪৪৪ হিজরী
Online Edition

যুবককে প্রেমের ফাঁদে ফেলে মুক্তিপণ আদায়কালে নারীসহ ৪ প্রতারক গ্রেফতার

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: বাগেরহাটের মোল্লাহাটে ফেসবুকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে মুক্তিপণ আদায়ের অভিযোগে নারীসহ চার প্রতারককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।  

সোমবার (২৭ মার্চ) মোল্লাহাট থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে চার প্রতারককে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতাররা হলেন, গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলার গিমাডাঙ্গা গ্রামের নাসির সিকদারের ছেলে কাদের সিকদার (২১), বশার বিশ্বাসের মেয়ে মাকসুদা আক্তার নিলা (২১) ও আকরাম সেখের ছেলে খালিদ সেখ (১৯)। এছাড়া ১৬ বছর বয়সী এক কিশোর।

মোল্লাহাট উপজেলার কামারগ্রাম এলাকার গুনির খাল এলাকা থেকে প্রতারণার স্বীকার রাকিব ওরফে রাশেদকে উদ্ধার করে পুলিশ। পরে রাশেদের তথ্য অনুযায়ী চার প্রতারককে গ্রেফতার করা হয়।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বরিশাল জেলার চরকানম গ্রামের আসলাম হাওলাদারের ছেলে রাকিব ওরফে রাশেদ (২৩) ঢাকার তেজগাঁও একটি কোম্পানিতে চাকরি করা অবস্থায় ফেসবুকে মাকছুদা আক্তার নীলা (২১)র সঙ্গে পরিচয় হয়। সেই পরিচয়ের সূত্রে ২৫ মার্চ বিকেলে রাকিব ওরফে রাশেদ ঢাকা থেকে গোপালগঞ্জের ঘোনাপাড়ায় আসেন। সেখানে পূর্ব থেকে অপেক্ষা করতে থাকা প্রতারক মাকছুদা আক্তার নীলা বেড়ানোর কথা বলে রাশেদকে একটি ইজি বাইকে তোলেন। কিছুদুর যাওয়ার পর ইজি বাইকে আরও ৪-৫ জন যুবক ওঠেন। তখন মাকছুদা কৌশলে ইজি বাইক থেকে নেমে যায়।  

একপর্যায়ে মোল্লাহাট উপজেলার কামারগ্রাম এলাকার গুনির খালের মাথায় ফাকা জায়গায় এনে রাশেদের মোবাইল ও ১৯ হাজার ৫০০ টাকা ছিনিয়ে নেয়। আসামিরা রাশেদের গলায় চাকু ধরে মারপিট করতে থাকে এবং এক লাখ পঞ্চাশ হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে রাশেদের পরিবারের কাছে।  

পরে রাশেদকে উদ্ধারের জন্য তার পরিবারের লোকজন মোল্লাহাট থানায় বিষয়টি জানালে  পরে অভিযান চালিয়ে নিলাসহ চারজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

মোল্লাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোমেন কুমার দাস বলেন, প্রতারণার স্বীকার রাশেদকে উদ্ধার করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। রাশেদের তথ্য অনুযায়ী চার প্রতারককে গ্রেফতার করে মামলা দায়ের পূর্বক মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) দুপুরে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ