ঢাকা, বৃহস্পতিবার 1 June 2023, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০, ১১ জিলক্বদ ১৪৪৪ হিজরী
Online Edition

পরকীয়া সন্দেহে স্ত্রীর আত্মহত্যা, আটক স্বামী

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: রাজধানীর মধ্য বাড্ডার একটি বাসায় ফাঁস দিয়ে মনোয়ারা আক্তার (২৫) নামে এক গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন বলে দাবি করেছেন তার স্বামী। তবে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামী শরিফুল ইসলামকে আটক রেখেছে পুলিশ।

রোববার (২৬ মার্চ) বিকেল ৩টার দিকে মধ্য বাড্ডা বড়টেক আমাতুন্নেছা স্কুলের পাশে একটি দোতলা বাড়ির নিচতলায় এ ঘটনা ঘটে। তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক সন্ধ্যা ৬টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

ফেনী সদর উপজেলার কইখালি গ্রামের আ. জলিলের মেয়ে মনোয়ারা।

তার স্বামী শরিফুল ইসলামের বাড়ি পাশের মধ্যমচারিপুর গ্রামে। প্রেমের সম্পর্কে ৮ বছর আগে বিয়ে করেন তারা।

এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে তাদের। শরিফুল ইসলাম ‘হক ট্রেডিং করপোরেশনের’ এরিয়া ম্যানেজার হিসেবে চাকরি করেন।

হাসপাতালে শরিফুল ইসলাম জানান, তিনি পরকীয়া করেন এমন সন্দেহ করেন তার স্ত্রী। এ নিয়ে তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া হতো। স্ত্রীকে বাসায় রেখে আজ দুপুর ১টার দিকে তিনি দুই সন্তানকে নিয়ে এলাকায়ই ঘুরতে বের হন। বিকেল ৩টার দিকে বাসায় ফিরে দেখেন ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস লাগিয়ে ঝুলছেন মনোয়ারা। সঙ্গে সঙ্গে তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখান থেকে তাকে ঢাকা মেডিকেলে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। ঢাকা মেডিকেলে নেওয়ার পর চিকিৎসক তাকে সন্ধ্যা ৬টার দিকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) মো. বাচ্চু মিয়া মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে। ঘটনাটি বাড্ডা থানায় জানানো হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শরিফুলকে আটক রাখা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ