রবিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩
Online Edition

কেমুসাসের ১১৩০ তম সাহিত্য আসর 

জাতীয় অধ্যাপক দেওয়ান মোহাম্মদ আজরফের ২৩তম মৃত্যু বার্ষিকী উপলক্ষে নিবেদিত কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদের ১১৩০তম নিয়মিত সাপ্তাহিক সাহিত্য আসরে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশিষ্ট লেখক, গবেষক ও কবি মুকুল চৌধুরী বলেছেন, রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনসহ এদেশে মানবিক মূল্যবোধ প্রতিষ্ঠায় দেওয়ান আজরফ অনন্য ভূমিকা পালন করেছেন। ১৯৪৮ সালে সিলেটে ভাষা আন্দোলন সংগঠিত করে জোরালো নেতৃত্ব দিয়েছেন এবং সাপ্তাহিক ‘নওবেলাল’ এর সম্পাদকরূপে বাংলাকে রাষ্ট্রভাষা করার আন্দোলনের স্বপক্ষে জনমত গঠন করেছেন। তিনি বলেন, দেওয়ান মোহাম্মদ আজরফ ১৯৯৩ সালে জাতীয় অধ্যাপকের স্বীকৃতি পাওয়ার আগেই জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রাজ্ঞ দার্শনিক হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করেছিলেন। 

গত ১০ নবেম্বর ২০২২ সন্ধ্যায় সংসদের সাহিত্য আসর কক্ষে কেমুসাসের সাহিত্য ও গবেষণা সম্পাদক এবং শাহজালাল বিশ্ব বিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিস্ট্রার আহমদ মাহবুব ফেরদৌসের সভাপতিত্বে এবং ছড়াকার নাঈমুল ইসলাম গুলজারের উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত আসরে অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট কণ্ঠশিল্পী শামছুল ইসলাম খান, গল্পকার মিনহাজ ফয়সল ও কবি চৌধুরী রাহাত। 

সাহিত্য আসরে স্বরচিত লেখাপাঠে অংশ নেন ঔপন্যাসিক সিরাজুল হক, সৈয়দ রেজাউল হক, কবি দেওয়ান গাজী আব্দুল কুদ্দুছ শমশাদ, ক্যালিগ্রাফার কবির আশরাফ, শিল্পী বাহাউদ্দিন বাহার, বিমান বিহারী বিশ্বাস, আহমদ কায়েছ, কুবাদ বখত চৌধুরী রুবেল ও মো. সাজিদুর রহমান, কবি মোহাম্মদ ইসমাইল, কবি মাজহারুল ইসলাম মেনন, কবি লুৎফা আহমদ লিলি, কবি জেনারুল ইসলাম, মো. হেলাল উদ্দিন দাদন, সাজ্জাদ আহমদ সাজু, কবি সৈয়দা ওয়াজিহা, কবি সামিয়া আফরিন, কবি সাইয়্যিদা মাইমুনা, সৈয়দ মুস্তাফিজুর রহমান, সৈয়দ কামরুল হাসান ও লিলু মিয়া প্রমুখ। 

-আহমদ মাহবুব ফেরদৌস

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ