ঢাকা, শনিবার 26 November 2022, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
Online Edition

শেরপুরে বিএনপির ২ শতাধিক নেতাকর্মীর নামে মামলা, ১৫ জন গ্রেফতার

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: শেরপুরে বিএনপির মিছিলে পুলিশ বাধা-সংঘর্ষের ঘটনায় ৬৬ জনের নাম উল্লেখ করে আরো ২শ নেতাকর্মীকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২২ নভেম্বর) রাতে শেরপুর সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আমিনুর রহমান বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। পরে বুধবার (২৩ নভেম্বর) দুপুরে ঘটনাস্থল থেকে আটক ১৫ জনকে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠালে আদালত তাদের জেলহাজতে পাঠিয়ে দেন।

মঙ্গলবার দুপুরে শহরের রঘুনাথ বাজার এলাকায় কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল বের হলে বাধা দেয় পুলিশ। একপর্যায়ে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন নেতাকর্মীরা। এ সময় পুলিশ লাঠিচার্জ, ২২টি টিয়ারশেল ও ১০১টি রাবার বুলেট ছুড়ে। এতে পথচারী ও বিএনপি নেতাকর্মীসহ কমপক্ষে অর্ধশত মানুষ আহত হয়। অন্যদিকে নেতা-কর্মীদের ইট-পাটকেলে ৭ পুলিশ আহত হয়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে বিএনপি, ছাত্রদলসহ বিভিন্ন অঙ্গ দলের ১৫ জনকে আটক করে পুলিশ। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্যরা হলেন- শ্রীবরদী উপজেলা কৃষক দলের যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুল মালেক, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তানভীর কবির খান রিয়াদ, পৌর ছাত্রদলের সদস্য সচিব খালিদুজ্জামান সিদ্দিকী আসিফ, শ্রীবরদী উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম নালিতাবাড়ীর উপজেলা বিএনপির যুগ্মআহ্বায়ক দুলাল হোসেন প্রমুখ।

এ ব্যাপারে শেরপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহমেদ বাদল জানায়, বিএনপির সঙ্গে সংঘর্ষে ৭ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে। এ ঘটনায় ৬৬ জনের নামে এবং ২শ অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তির নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ