শুক্রবার ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Online Edition

ওষুধ ও ইনসুলিনের মান কেমন?

আমাদের দেশের ফার্মাসিউটিক্যালসের সক্ষমতা বেড়েছে। দেশে প্রায় ৮-১০টি কোম্পানি রয়েছে যারা বিদেশে ওষুধ রপ্তানি করছে। এদের ওষুধ বিশ্বমানের বলে আমি মনে কর

গর্ভাবস্থায় যাদের ডায়াবেটিস হচ্ছে, তা প্রতিরোধের উপায় কী?

গর্ভাবস্থার আগে থেকেই যাদের ডায়াবেটিস ছিল তাদের প্রি-এক্সিসটিং ডায়াবেটিস বলে। গর্ভাবস্থার ২৪-২৮ সপ্তাহে যাদের ডায়াবেটিস ধরা পড়েছে তাকে জেস্টশনাল ডায়াবেটিস ম্যালাইটাস বলে। জেস্টশনাল ডায়াবেটিসের শতকরা ৭০ ভাগের কোনো চিকিৎসা লাগে না। সঠিক খাদ্যাভ্যাস ও হাঁটাহাঁটি করে এটি নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব। যাদের আগে থেকে ছিল তাদের ইনসুলিন প্রয়োজন। এদের তিন মাসের সুগারের গড় মান বা এইচবিএওয়ান-সি শতকরা ৬-৬.৫ থাকা চাই। এমন থাকলে তারা প্রেগন্যান্ট হতে পারবেন। গর্ভবতী হলে মুখে খাওয়ার ওষুধ বন্ধ করা হয় এবং মনিটরিং করে মেটফরমিন বাদ দিয়ে ইনসুলিন দিতে হবে। এর ফলে মাতৃত্বকালীন ও শিশুর জটিলতা উভয়ই প্রতিরোধ করা সম্ভব। গর্ভবতীরা বাসায় নিয়মিত গ্লুকোমিটারের সাহায্যে সুগার মাপবেন এবং অন্য রোগীদের চেয়ে এদের সুগার খালি পেটে ৫.৩ ও ভরা পেটে ৬.৭ থাকতে হবে।

ইনসুলিন সংরক্ষণের নিয়ম  ইিনসুলিন ঠাণ্ডা জায়গায় রাখা প্রয়োজন। না হলে এর কর্মক্ষমতা কমে যায়। 

এিক মাসের বেশি সময় রাখতে হলে ফ্রিজে ২ থেকে ৮. ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড তাপমাত্রায় রাখতে হবে। একবার খোলা ইনসুলিন ২৮ দিনের বেশি ব্যবহার করা যাবে না। 

েিযখানে ফ্রিজ নেই সেখানে মাঝারি আকারের একটা মাটির হাড়িতে পরিষ্কার কাপড়ে ইনসুলিনের বোতল পেঁচিয়ে, হাড়িতে ঢাকনি বন্ধ করে অপেক্ষাকৃত অন্ধকার ও ঠাণ্ডা জায়গায়, যেমন- চৌকি বা খাটের তলায় ইনসুলিন রাখতে পারেন। 

গিরমের দিনে ইনসুলিন কিনে নিয়ে যাওয়ার সময় পলিথিন মুড়িয়ে ঠাণ্ডা পানির বোতলে ভরে অথবা বক্সে বরফের সাথে ইনসুলিন বহন করবেন। 

(রাস্তায় গরম আবহাওয়ায় বাসায় পৌঁছানোর পূর্বেই ইনসুলিন নষ্ট হয়ে যেতে পারে) 

ডাঃ সুলতানা মারুফা শেফিন 

এমবিবিএস, এমডি (এন্ডোক্রাইনোলজী, এফএসিই(ইউএসএ), এমএসিপি(ইউএসএ)

 

ট্রেইড ইন এডভান্সড এন্ডোক্রাইনোলজী (সিঙ্গাপুর, ইউএসএ) হরমোন, ডায়াবেটিস ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ, সহযোগী অধ্যাপক, এন্ডোক্রাইনোলজী ও ডায়াবেটলজি বিভাগ ,ইবনে সিনা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, ঢাকা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ