শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর ২০২২
Online Edition

ড. ইউনূসের বই গায়েব জাতির জন্য লজ্জাজনক ----- রব

স্টাফ রিপোর্টার : নোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূসের লেখা ‘এ ওয়ার্ল্ড অব থ্রি জিরোস: দ্য নিউ ইকোনমিকস অব জিরো প্রভার্টি, জিরো আনইমপ্লয়মেন্ট অ্যান্ড জিরো নেট কার্বন ইমিশনস’ বইটি অদৃশ্য শক্তির ইশারায় জাতীয় সংসদ লাইব্রেরি থেকে গায়েব করার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন জেএসডি সভাপতি আ স ম আবদুর রব। গতকাল বুধবার গণমাধ্যমে দেওয়া এক বিবৃতিতে তিনি এ নিন্দা জানান।

বিবৃতিতে আবদুর রব বলেন, বিশ্ব বরেণ্য, বাঙালির অহংকার ড. মুহাম্মদ ইউনূসের এ ওয়ার্ল্ড অব থ্রি জিরোস বইটি মানবজাতি ও পৃথিবীকে রক্ষার নতুন দর্শন হিসেবে সারা বিশ্বে ব্যাপকভাবে আলোচিত। সেই বইটি জাতীয় সংসদ লাইব্রেরিতে রাখা ভীতিকর গণ্য করে টানা-হেঁচড়া করা, সরিয়ে ফেলা, আড়াল করা এবং গায়েব করার ঘটনা অতীব দুঃখজনক। তিনি বলেন, প্রফেসর ড. ইউনূসের বই পৃথিবীর বহু দেশে বহুল পঠিত ও প্রশংসিত। তিনি ক্ষুদ্রঋণ ধারণারও প্রবর্তক। ড. ইউনূসের বই বাংলাদেশে নিষিদ্ধও নয়, এমনকি ধর্ম, রাষ্ট্র এবং গণতন্ত্রের সঙ্গে সাংঘর্ষিকও নয়। সরকারের অন্ধ সমর্থক না হওয়ার কারণে প্রফেসর ইউনূসের বই জাতীয় সংসদের লাইব্রেরি থেকে উধাও করে ফেলা হীনমন্যতার প্রকাশ।

বিবৃতিতে জেএসডি সভাপতি বলেন, লাইব্রেরি হচ্ছে সব মত, পথ ও মতাদর্শের সংরক্ষণাগার। ড. ইউনূসের মত, দর্শন এবং প্রস্তাবনাকে বাস্তবায়ন করতে হলে যেমন তার বই পাঠ করা প্রয়োজন, তেমনি বিরোধিতার জন্যও পাঠ করা প্রয়োজন। তিনি বলেন, শিক্ষা, ইতিহাস, দর্শন, গণতন্ত্র, গবেষণা এবং আত্মবিকাশের স্বার্থে জাতীয় সংসদ লাইব্রেরিতে সব মতাদর্শের বই থাকা বাঞ্ছনীয়। জাতীয় জীবনে ভিন্নমত ও পথকে নিধন করে সরকার ভয়ের যে সংস্কৃতি সমাজের প্রতিটি স্তরে ছড়িয়ে দিয়েছে তার হাওয়া লেগেছে খোদ জাতীয় সংসদের লাইব্রেরি প্রশাসনেও। অদৃশ্য শক্তির ইশারায় প্রফেসর ইউনূসের বই লুকিয়ে ফেলে বা গায়েব করে লাইব্রেরি প্রশাসন আতঙ্ক মুক্ত হয়ে চাকরি রক্ষা করতে চেয়েছে।

আবদুর রব আরও বলেন, ‘জাতীয় সংসদের লাইব্রেরি থেকে নোবেল বিজয়ী ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ব্যক্তিত্ব ড. মুহাম্মদ ইউনূসের গায়েবকৃত বই অবিলম্বে উদ্ধারপূর্বক যথাস্থানে প্রতিস্থাপন করার আহ্বান জানাচ্ছি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ