ঢাকা,বুধবার 30 November 2022, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
Online Edition

মাত্র একবার মদ্যপানেই মস্তিষ্কের মারাত্মক ক্ষতি হয়: গবেষণা

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: সম্প্রতি জার্মানির কোলন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা জানিয়েছেন, একবার অ্যালকোহল দেহে প্রবেশ করলেই তার প্রভাব পড়তে শুরু করে স্নায়ু কোষের ওপর। যার কারণে মস্তিষ্ক ক্ষতিগ্রস্ত হয় মারাত্মকভাবে।

গবেষকদের এই গবেষণা ‘প্রসিডিংস অব দ্য ন্যাশনাল একাডেমি অব সায়েন্সেস’ নামের গবেষণাপত্রে প্রকাশিত হয়েছে। যেখানে বলা হয়েছে, শরীরে মদের কুপ্রভাবের জন্য বারবার মদ্যপানের কোনো প্রয়োজন নেই, মাত্র একবারই যথেষ্ট।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, গবেষকদের দাবি, একবারের মদ পানই চিরদিনের মতো বদলে দিতে পারে মস্তিষ্কের কোষের গঠন। গবেষণায় পাওয়া তথ্য বলছে, একবার যারা মদ পান করেন, তাদের মদ্যপানের নেশা প্রায়ই হতে দেখা যায়।

এর কারণ হিসেবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রথমবার মদ খাওয়া থেকেই মস্তিষ্কে মদ পানের আসক্তি শুরু হয়ে যায়।

গবেষকরা ড্রসোফিলা মেলানোগ্লসটার নামের মাছি ‘জেনেটিক মডেল’-এর ওপর এ গবেষণা চালান। মাছির মস্তিষ্কের কোষের ওপর ইথানল নামের একপ্রকার অ্যালকোহলের প্রভাব পরীক্ষা করে দেখেন তারা।

সাধারণত মস্তিষ্কের কোষ বা নিউরন সাইন্যাপস নামের সন্ধির মাধ্যমে পরস্পরের সঙ্গে যুক্ত থাকে। কিন্তু একবার মদ পানের পরই এই সন্ধিস্থলে পরিবর্তন পড়তে শুরু করে।

গবেষকদের পর্যবেক্ষণে যে তথ্য বেরিয়ে আসে তা হলো, প্রথমবার মদ্যপানে শুধু নিউরনের সন্ধিস্থলেই পরিবর্তন হয় না, সন্ধির আণবিক গঠনেও বদল আসে। যে পরিবর্তনকে স্থায়ী বলেই মনে করছেন গবেষকরা। এই পরিবর্তনের প্রভাব থাকে সারা জীবন।

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, মাছির ওপর এ প্রভাব মানুষের মধ্যেও সমান কার্যকরী কি না, সে বিষয়ে শতভাগ নিশ্চিত তথ্য পেতে আরও গবেষণা প্রয়োজন। কেননা, মাছির ক্ষেত্রে যে মদের কুপ্রভাব পাওয়া গেছে, তা সমানভাবে মানুষের ওপর না-ও পড়তে পারে। তাই পুরো বিষয়টি নিশ্চিত করতে আরও গবেষণা শুরু করেছেন সংশ্লিষ্ট গবেষকরা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ