ঢাকা, শনিবার 26 November 2022, ১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
Online Edition

যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তায় এজিয়ান দ্বীপাঞ্চলে রণতরী মোতায়েন করেছে গ্রীস

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: আন্তর্জাতিক আইন লংঘন করে তুরস্কের কাছাকাছি এজিয়ান দ্বীপাঞ্চলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দেয়া রণতরী মোতায়েন করেছে গ্রিস। রোববার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের অর্থায়নে লেসবোস ও সামোস অঞ্চলে এসব রণতরী পাঠানো হয়েছে। 

আন্তর্জাতিক আইন অমান্য করা গ্রিসের এই কর্মকাণ্ড পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে তুরস্ক। আর যুক্তরাষ্ট্র গ্রীসকে এই অবৈধ কর্মকাণ্ডে সহায়তা করছে যা প্রতিবেশী দেশ দুটোর মধ্যে উত্তেজনা বৃদ্ধির ইন্ধন যোগাচ্ছে।

নিরাপত্তা সূত্রের তথ্যমতে, তুর্কি আর্ম ফোর্স (টিএসকে) ড্রোন মিশন পরিচালনা করছে এবং এজিয়ানে দুটি গ্রিক রণতরী চিহ্নিত করেছে। যেগুলো লেসবোস ও সামোস অঞ্চলের দিকে যাচ্ছে।

সূত্রে জানানো হয়, লেসবোসের দিকে যাওয়া রণতরীটি ২৩ ট্রাক্টিকাল অস্ত্রে সজ্জিত এবং সামোসের দিকে অগ্রসারমান রণতরীটি ১৮ ট্রাট্ক্যিাল অস্ত্রে সজ্জিত। এসব রণতরী যুক্তরাষ্ট্র থেকে আলেক্সজান্দ্রপলি বন্দরের দিকে পাঠানো হয়েছে।

নিরাপত্তা সূত্র জানায়, এইসব কর্মকাণ্ডগুলো ১৮ থেকে ২১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সম্পন্ন হয়েছে, যা থেকে বোঝা যাচ্ছে গ্রিস তার প্রতিবেশী দেশ তুরস্কের কাছাকাছি দ্বীপাঞ্চলে রণতরী মোতয়েন করে আইনের লঙ্ঘন করছে।

সূত্রের তথ্যানুসারে, যুক্তরাষ্ট্রের অর্থায়নে অস্ত্রগুলো দ্বীপটিতে পাঠানো হয়েছে। ন্যাটোভুক্ত দেশটির এই আগ্রাসী কর্মকাণ্ড পর্যবেক্ষণ করছে তুরস্ক, যা আন্তর্জাতিক আইনের পরিপন্থী। সংস্থাভুক্ত দেশগুলোর এমন আন্তর্জাতিক আইন পরিপন্থী কর্মকাণ্ড এবং প্রতিবেশী দেশের সাথে অবন্ধুত্বপূর্ণ আচরণ ‘কখনো গ্রহণযোগ্য’ হবে না।

সূত্র : ডেইলি সাবাহ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ