ঢাকা, শুক্রবার 02 December 2022, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী
Online Edition

তাইওয়ান প্রণালীতে যুক্তরাষ্ট্রের দুই যুদ্ধজাহাজ

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্কঃ এই মাসে মার্কিন হাউস স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরে মার্কিন-চীন উত্তেজনা বেড়েছে। এরপর চীনের আপত্তি উপেক্ষা করে তাইওয়ান প্রণালী পাড়ি দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর দুটি যুদ্ধজাহাজ। খবর সিএনএনের।  

জাপানে মার্কিন ৭ম নৌবহর এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, গাইডেড-মিসাইল ক্রুজার ইউএসএস অ্যান্টিটাম ও ইউএসএস চ্যান্সেলরসভিল রবিবার (২৭ আগস্ট) যাত্রা শুরু করে। যেখানে আন্তর্জাতিক আইন অনুসারে সমুদ্রের নৌচলাচল ও ওভারফ্লাইটের স্বাধীনতা প্রযোজ্য রয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ট্রানজিট চলমান রয়েছে ও এখন পর্যন্ত বিদেশি সামরিক বাহিনীর কোন হস্তক্ষেপ হয়নি।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, এই জাহাজগুলো ট্রানজিট করছে তাইওয়ান প্রণালীতে একটি করিডোর দিয়ে যা কোনও উপকূলীয় রাজ্যের আঞ্চলিক সমুদ্রের বাইরে অবস্থিত। 

এই প্রণালী দিয়ে জাহাজের ট্রানজিট একটি মুক্ত ও উন্মুক্ত ইন্দো-প্যাসিফিকের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিশ্রুতি প্রদর্শন করে। আন্তর্জাতিক আইন যেখানে অনুমতি দেয় সেখানে যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী উড়ে, পাল তোলে ও পরিচালনা করে।

প্রণালীটি হলো একটি ১১০ মাইল প্রসারিত জলপথ যা গণতান্ত্রিক স্ব-শাসিত দ্বীপ তাইওয়ানকে মূল ভূখণ্ড চীন থেকে পৃথক করে। চীনের ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টি কখনই দ্বীপটিকে নিয়ন্ত্রণ না করলেও বেইজিং তাইওয়ানের ওপর সার্বভৌমত্ব দাবি করে।

এছাড়াও প্রণালীটিকে চীনের অভ্যন্তরীণ জলসীমার অংশ হিসেবে বিবেচনা করে।

মার্কিন নৌবাহিনী অবশ্য বলছে, বেশিরভাগ প্রণালী আন্তর্জাতিক জলসীমায় অন্তর্ভুক্ত। এই ট্রানজিটগুলোর কারণে বেইজিং ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে।  

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ