মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
Online Edition

রুশো ঝড়ে সমতায় দক্ষিণ আফ্রিকা

স্পোর্টস ডেস্ক : কোলপ্যাক চুক্তিতে ২০১৬ সালে ইংলিশ কাউন্টিতে যোগ দিয়েছিলেন রাইলি রুশো। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চলতি টি-টোয়েন্টি সিরিজ দিয়ে দীর্ঘ ৬ বছর পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরেছেন দক্ষিণ আফ্রিকান এই ব্যাটার। সিরিজের প্রথম ম্যাচে মাত্র ৪ রান করা রুশো এবার খেললেন ৯৬ রানের ইনিংস। আর ৫৮ রানের জয়ে সিরিজে সমতা টানলো দক্ষিণ আফ্রিকা। গত বৃহস্পতিবার কার্ডিফে আগে ব্যাট করে রুশো-হেনড্রিকসদের দাপুটে ব্যাটিংয়ে ৩ উইকেটে ২০৭ রান তোলে দক্ষিণ আফ্রিকা। জবাবে ১৪৯ রানেই গুটিয়ে যায় ইংল্যান্ডের ইনিংস।জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ওপেনিং জুটিতে ৩৭ রান তোলেন জস বাটলার ও জেসন রয়। অধিনায়ক বাটলার ১৪ বলে ২৯ রান করে আউট হলে ভাঙে এই জুটি। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে ইংল্যান্ড। ১০০ ছোঁয়ার আগেই ৫ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। ডেভিড মালান ৫ রানে আউট হন।  জেসন রয় ২২ বলে ২০ করেন। ইংল্যান্ডের দ্রুততম ফিফটির মালিক মঈন আলী ফেরেন ২৮ রানে। ১৭ বলের ইনিংসটিতে ৩ বাউন্ডারি হাঁকান তিনি। দলীয় সর্বোচ্চ রান করেন জনি বেয়ারস্টো। ২১ বলে ৪ বাউন্ডারিতে ৩০ রান করেন তিনি। লিয়াম লিভিংস্টোন ১০ বলে ১৮ করেন। এছাড়া আর কেউই ছুঁতে পারেনি দুই অঙ্কের কোঠা।  ১৬.৪ ওভারেই অলআউট হয়ে যায় ইংল্যান্ড। দক্ষিণ আফ্রিকার অ্যান্ডাইল পেহলুকায়ো ও তাবরাইজ শামসি ৩টি করে উইকেট নেন। দুটি উইকেট পান লুঙ্গি এনগিডি। একটি করে উইকেট নেন কাগিসো রাবাদা ও কেশভ মহারাজ। এর আগে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে দলীয় ৩৯ রানে প্রথম উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। ১১ বলে ১৫ রান নিয়ে আউট হন কুইন্টন ডি কক। এরপর রেজা হেনড্রিকসের সঙ্গে ৭৩ রানের জুটি গড়েন রাইলি রুশো। হেনড্রিকস ফিফটি হাঁকিয়ে আউট হলে ভাঙে এই জুটি। ফেরার আগে ৩২ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় ৫৩ রান করেন প্রোটিয়া ওপেনার। এরপর হেইনরিখ ক্লাসেন ১৯ রান করেন। ট্রিস্টান স্টাবস ১৫ রানে অপরাজিত ছিলেন। ৪ রানের জন্য সেঞ্চুরি ছুঁতে না পারা রুশোও ছিলেন অপরাজিত।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ