মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২
Online Edition

ভলিবলে কীর্তিমানদের সম্মাননা

স্পোর্টস রিপোর্টার : সত্তর-আশির দশকে ভলিবল ছিল অন্যতম জনপ্রিয় খেলা। ভলিবলের ইয়াদ আলীর জনপ্রিয়তা সেই সময়ের তারকা ফুটবলারদের চেয়ে কোনো অংশে কম ছিল না। কালের বিবর্তনে সেই ভলিবল এখন জনপ্রিয়তার তলানিতে। গতকাল শুক্রবার ভলিবল খেলোয়াড় কল্যাণ সমিতি ভলিবল থেকে জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কারপ্রাপ্তদের জন্য এক সম্মাননা আয়োজন করে। কৃতি ক্রীড়া লেখক ও ধারাভাষ্যকার আব্দুল হামিদ ছিলেন ভলিবল অন্তঃপ্রাণ। তগতকার  খেলোয়াড় কল্যাণ সমিতির পক্ষ থেকে ক্রীড়া সংগঠক আবদুল হামিদের মরণোত্তর সংবর্ধনার ক্রেস্ট হাতে নিয়ে তার ছেলে আবদুল কাইয়ুম বলেন, ‘বাবা (আবদুল হামিদ) মারা গেছেন সেই কবে। আজ উনার সংবর্ধনা নিতে এলাম। বাবা বেঁচে থাকলে প্রিয় ভলিবল থেকে সংবর্ধনা পেলে অনেক বেশি খুশী হতেন।’ আব্দুল হামিদ ছাড়া খন্দকার আবুল হাসান, মোস্তফা কামাল, আশিকুর রহমান মিকু, তাবিউর রহমান পালোয়ান, শামীম আল মামুন ও বেগম হেলেনা খান- জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার পাওয়া কীর্তিমান সাবেক এই ভলিবল খেলোয়াড়দেরও সংবর্ধনা দেওয়া হয়। জাতীয় ভলিবলে খেলোয়াড় সরবরাহে খুব শিগগিরই একাডেমির কাজ শুরু করবে বাংলাদেশ ভলিবল খেলোয়াড় কল্যাণ সমিতি।ভলিবল খেলোয়াড় কল্যাণ সমিতির সভাপতি জহিরুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপদেষ্টা আবদুল লতিফ সরকার, সাধারণ সম্পাদক আজিজুর রহমান এবং সাবেক সিনিয়র সচিব ও বাংলাদেশ ফরেন ট্রেড ইনস্টিটিউটের প্রধান নির্বাহী মো. জাফর উদ্দিন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ