ঢাকা সোমবার 08 August 2022, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯, ৯ মহররম ১৪৪৪ হিজরী
Online Edition

পদ্মা সেতুর দুই পাড়ে যানজট

ছবি: বিবিসি

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: উদ্বোধনের একদিন পর রবিবার ভোর থেকে যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে পদ্মা সেতু।

ভোর ছয়টায় সেতু খুলে দেয়ার পর সেতুর দুই প্রান্তে দীর্ঘ যানজট তৈরি হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। টোল প্লাজায় এক একটি যানবাহনের টোল আদায় করতে যে সময় লাগছে, তার তুলনায় যানবাহনের চাপ অনেক বেশি হওয়ায় এই পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

এছাড়া প্রথম দিন সেতু পার হতে আগ্রহীদের সংখ্যা অনেক বেশি হওয়াও যানজটের একটা কারণ বলে জানা গেছে।

এক একটি গাড়ির টোল আদায় করতে দু-তিন মিনিটের মতো লাগছে। মোট ছটা বুথ থেকে টোল আদায় করা হলেও, যানবাহনের চাপ অত্যধিক হওয়ায় এই যানজট তৈরি হয়েছে।

খুব ধীরে ধীরে এগোচ্ছে গাড়িগুলো। যানজটের কারণে টোল প্লাজায় পৌঁছাতে  আধা ঘণ্টার মতো সময় লাগছে। তবে পদ্মা সেতু প্রথমবারের মতো পার হওয়া নিয়ে মানুষের উচ্ছ্বাস এত বেশি যে যানজট নিয়ে খুব বেশি অভিযোগ নেই কারোর।

আব্দুল্লাহ হাসান নামের একজন বাইক আরোহী নিজের ফেসবুকে এক পোস্টে লিখেছেন, ‌‘পদ্মা সেতুর টোল প্লাজা থেকে প্রায় ৩ কি.মি জ্যাম। মূলত অতিরিক্ত গাড়ির চাপ। বাম লেন ধরে আর বাইক থাকাতে সময় লাগেনি। আলহামদুলিল্লাহ্। 

জানা যায়, রাত থেকেই নদীর দুই পাড়ে বিপুলসংখ্যক যান এসে দাঁড়ায় পদ্মা সেতু পারি দেওয়ার জন্য।

ভোর থেকে যাত্রা শুরু হলে সবাই প্রথমবারের মতো সেতুতে উঠার জন্য গাড়ির টোল দিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। আজ প্রথম টোল দিয়েছেন এক মোটরসাইকেল আরোহী। প্রথম দিনে দীর্ঘলাইনে থাকলেও তাদের আনন্দের শেষ নেই, যাত্রীরাও উচ্ছ্বসিত। দুই প্রান্তে নেওয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থাও।

যান চলাচলের জন্য সেতুটি খুলে দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দুই প্রান্তের ১৪টি টোল গেট চালু হয়ে যায়। সবকয়টি গেটে ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। নির্ধারিত টোল দিয়ে থ্রি হুইলার ছাড়া যে কোনো গাড়ি পার হতে পারছে পদ্মা সেতু দিয়ে।  

গতকাল শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পদ্মা বহুমুখি সেতুটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন। পরে গভীর রাত থেকে পদ্মা সেতুর টোল প্লাজায় ভিড় করতে থাকে হাজারো যানবাহন ও দর্শনার্থী। এতে করে প্রায় ৭ কিলোমিটারজুড়ে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।  

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ