রবিবার ২৬ জুন ২০২২
Online Edition

ইরানি তেলের বিশাল চালান চীনে

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: ইরান থেকে পাঠানো তেলের একটি বিশাল চালান গ্রহণ করেছে চীন। ভোরাটেক্সা অ্যানালিটিকসের রিপোর্ট এবং আমেরিকাভিত্তিক ইরান বিরোধী একটি গোষ্ঠীর তথ্য থেকে এই খবর জানা গেছে।

আগে থেকেই ইরান সরকার বলে আসছে, মার্কিন নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও তেহরান চীনে তেল বিক্রি বাড়িয়েছে। তবে দাবি করা হচ্ছে, রাশিয়া-ইউক্রেন সংঘাতের কারণে চীন রাশিয়া থেকে তেল আমদানি বাড়িয়েছে এবং চীনে ইরানের তেল রফতানির ওপর কিছুটা প্রভাব পড়েছে।

বুধবার বার্তাসংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, গত সপ্তাহে চীন ইরানের কাছ থেকে ২ লাখ ৬০ হাজার টন অপরিশোধিত তেলের একটি বিশাল চালান গ্রহণ করেছে। চীনের দক্ষিণাঞ্চলীয় ঝাঞ্জিয়াং সমুদ্রবন্দরে ওই তেল খালাস করা হয়।

জানা গেছে, ইরানের জাতীয় তেল কোম্পানির মালিকানাধীন দোরেনা নামে একটি কার্গো জাহাজে করে চীনা বন্দরে এই তেল পাঠায় ইরান।

২০২১ সালের দ্বিতীয়ার্ধ থেকে ইরানের তেল রফতানি বাড়তে থাকে এবং প্রতিদিন ১০ লাখ ব্যারেল ছাড়িয়ে যায়। মার্কিন নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও ইরানি তেল বিক্রির এই ব্যাপক বিস্তৃতি ঘটে। ইরান থেকে যে বিপুল পরিমাণ তেল চীনে রফতানি হচ্ছে তার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ রফতানি করছে ইরানের বেসরকারি উদ্যোক্তারা। তবে তেল আমদানির এসব রেকর্ড চীন সরকার সংরক্ষণ করে থাকে।

চীনের সাম্প্রতিক তথ্য অনুসারে, রাশিয়া থেকে চীন তেল আমদানি বাড়ানো সত্ত্বেও বেইজিংয়ের কাছে ইরানের তেল রফতানিও শতকরা ৭ ভাগ বেড়েছে। মে মাস থেকে প্রতিদিন ইরান ১ কোটি ৮ লাখ ব্যারেল তেল রফতানি করছে।

সূত্র : পার্সটুডে

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ