শুক্রবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩
Online Edition

ফুটবলে ‘থ্রো ইনের' পরিবর্তে  আসছে 'কিক ইন'

থ্রো-ইনের বদলে ফুটবলে চালু হতে পারে কিক-ইন। এমনটাই প্রস্তাব করেছেন ফিফার ফুটবল ডেভেলপমেন্ট প্রধান আর্সেন ওয়েঙ্গার। ফিফাও সে পথেই এগোতে চাইছে। ফুটবলের আইনপ্রণেতারা এ প্রক্রিয়া পরীক্ষামূলকভাবে চালু করার অনুমতি দিয়েছেন। তবে হঠাৎ করে ফুটবলে ‘থ্রো ইনের' পরিবর্তে 'কিক ইন' কেনো? এতদিনের চিরায়ত দৃশ্য বন্ধে উদ্যোগ নেয়ার পিছনে আছে মূলত সময় বাঁচানোর চিন্তা। খেলা চলাকালীন থ্রো ইন করতে ফুটবলারদের সময়ক্ষেপণ করা নতুন কোনো ঘটনা না। ফুটবল মাঠে এই ঘটনা নিয়মিতই ঘটে। সেই সময় বাঁচানোর কথা চিন্তা করেই থ্রো ইনের বদলি হিসেবে কিক ইন শুরু করার চিন্তা ভাবনা শুরু করেছে ফিফা। ফুটবলের বিশ্ব নিয়ন্ত্রক সংস্থা জানিয়েছে, কিক ইনের মাধ্যমে দ্রুত খেলা সম্ভব করা যায় কি-না সেই বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করা হবে। যৌথভাবে এই পরীক্ষা চালাবে ফিফা ও ফুটবলের নিয়ম প্রণয়নকারী সংস্থা আন্তর্জাতিক ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন বোর্ড (আইএফএবি)। 

এই পর্যবেক্ষণ চলবে নেদারল্যান্ডসের দ্বিতীয় বিভাগ ফুটবল লিগে। এছাড়া বল মাঠের বাইরে থাকলে কিংবা কেউ চোটে পড়লে এতদিন সময় গণনা বন্ধ হতো না। এতে শেষদিকে অতিরিক্ত সময় দিয়ে এই ক্ষতি পুষিয়ে নেয়া হত। বিষয়টি নিয়ে তৈরি হত নানা বিতর্ক। তাই খেলার বাইরের ঘটনার সময় খেলার সময় গণনা বন্ধ রাখার বিষয়টি ট্রায়াল চালাবে ফিফা। ইন্টারনেট

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ