রবিবার ২৬ জুন ২০২২
Online Edition

চুল ওঠা সম্পূর্ণ বন্ধ করবেন কিভাবে 

মাথা থেকে নিয়মিত চুল ওঠা একটা স্বাভাবিক ব্যাপার। মাথায় চুলের সংখ্যা এত বেশি থাকে যে অনেকের ক্ষেত্রে সেটা সমস্যা নয়। যাদের চুল কম থাকে তাদের সমস্যা। আর সমস্যা মেয়েদের। তাদের সৌন্দর্য্যরে একটা প্রধান দিক হলো ঘন বড় চুল। এখন প্রতি দু’জন মানুষের একজন চুল পড়ার সমস্যায় ভুগছেন। চুল পড়ার পিছনে অনেক কারণ থাকলেও আজকাল বেশিরভাগ মানুষেরই স্ট্রেস বা মানসিক চাপের কারণে চুল পড়ে যাচ্ছে। আপনারও যদি চুল পড়া সমস্যা থাকে, তবে পেঁয়াজের তেল আপনার সমস্যার সমাধান করতে পারে। পেঁয়াজের তেল চুলের প্রাকৃতিক কন্ডিশনার হিসাবে কাজ করে। এটি লাগালে চুল নরম হয়। এজন্য শ্যাম্পুর আগে সব সময় এই তেল লাগান। এই তেল চুলের শুষ্কতা দূর করে। এটি নিয়মিত ব্যবহারে চুল ঘনও হয়। ডগা ফাটার সমস্যা কমে। পেঁয়াজের তেলের সালফার চুল পড়ার সমস্যা থেকে মুক্তি দেয়। এটি লাগালে চুল ঘন হয়। চুলের গোড়ায় রক্ত সঞ্চালন বাড়ে। চুলে নিয়মিত পেঁয়াজের তেল লাগালে মাথার ত্বক পরিপূর্ণ পুষ্টি পায় এবং গোড়ার রক্ত সঞ্চালন বাড়ে। ফলে চুলের গোড়া মজবুত হয়। পেঁয়াজের তেলে কিছু অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট রয়েছে, যা চুল পড়া রোধ করে। এই তেলের ব্যবহারে চুল পরিপূর্ণ পুষ্টি পায়। ফলে নতুন চুল গজানোর হারও বাড়ে। অনেক সময়ে মাথার ত্বকে ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণের কারণেও চুল পড়ার সমস্যা শুরু হয়। এমন অবস্থায় চুলে পেঁয়াজের তেল লাগালে সংক্রমণ প্রতিরোধ হয়। প্রতিদিন পেঁয়াজের তেল দিয়ে চুলের গোড়ামাসাজ করুন। কীভাবে বানাবেন পেঁয়াজের তেল? প্রথমে পেঁয়াজের রস নিন। চাইলে পেঁয়াজের পেস্টও নিতে পারেন। একটি প্যানে নারকেল তেল গরম করে পেঁয়াজের রস বা পেস্ট দিয়ে রান্নার মতো করুন। কিছুক্ষণ ঠান্ডা করুন। এর পরে, একটি চালুনি বা সুতির কাপড় দিয়ে এই তেলটি ছেঁকে নিন। পেঁয়াজের তেল প্রস্তুত। এই তেল এয়ার টাইট পাত্রে ৬ মাস পর্যন্ত সংরক্ষণ করতে পারেন। পেঁয়াজের তেলে তীব্র গন্ধ থাকে। তাই সব সময় রাতে তেলটি লাগান এবং সকালে চুলে শ্যাম্পু করুন। তথ্যসূত্র : ইন্টারনেট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ