সোমবার ২৯ নবেম্বর ২০২১
Online Edition

প্রেমের টানে চট্টগ্রামে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন লিমা

গাইবান্ধা সংবাদদাতা : প্রেমের টানে চট্টগ্রামে গিয়ে লাশ হয়ে ফিরলেন সৃন্দরগঞ্জ উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের ধর্মপুর গ্রামের লিমা খাতুন। রহস্যজনক মৃত্যুর কারণে প্রেমিক সাকিল মিয়াকে আটক করেছে চট্টগ্রাম ইপিজেড থানা পুলিশ। লিমা খাতুন ওই গ্রামের আব্দুল লতিফ মিয়ার মেয়ে এবং শাকিল প্রতিবেশি শহিদুল ইসলামের ছেলে। জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে তাদের মধ্যে প্রেমের ছিল। এরই একপর্যায় গত ১৫দিন আগে লিমা প্রেমের টানে চট্টগ্রামে শাকিলের কাছে ছুটে যায়। স্বামীর-স্ত্রীর পরিচয়ে ভাড়া বাসায় থাকতে শুরু করে তারা। গত শনিবার রাতে গলায় ফাঁস দিয়ে লিমা আত্মহত্যা করেছে মর্মে ফাঁসের ছবি তুলে লিমার পরিবারের নিকট পাঠিয়ে দেয় শাকিল। খবর পেয়ে চট্টগ্রাম ইপিজেড থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরুতহাল রির্পোট ও ঘটনার বিস্তারিত জেনে ওই মৃত্যুর বিষয়টি রহস্যজনক হওয়ায় শাকিলকে আটক করে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। লিমার পরিবারের দাবি শাকিল লিমাকে হত্যা করে গলায় ফাঁস টাঙিয়ে ঝুলে রেখে ছবি তুলে বাড়িতে পাঠায়। পাশাপাশি লিমার বাবা সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। এরই প্রেক্ষিতে সুন্দরগঞ্জ থানা পুলিশ চট্টগ্রাম ইপিজেড থানার সাথে যোগাযোগ করে আটক শাকিল এবং লাশ সুন্দরগঞ্জে নিয়ে আসার ব্যবস্থা করে। গতকাল সোমবার সকালে লাশসহ শাকিলকে সুন্দরগঞ্জ থানায় নিয়ে আসা হয়। সুন্দরগঞ্জ থানার মামলা তদন্তকারি কর্মকর্তা এস আই হারুন-আর রশিদ জানান, প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে, লিমার মৃত্যুটি রহস্যজনক। ময়না তদন্তের রিপোর্টে সত্যটা জানা যাবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ