সোমবার ২৯ নবেম্বর ২০২১
Online Edition

মিরসরাইয়ে মা-বাবা ও ভাইকে গলা কেটে হত্যা করেছে বড় ছেলে

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: মিরসরাইয়ে একই পরিবারের তিন জনকে গলা কেটে হত্যার কথা স্বীকার করেছে গ্রেফতারকৃ ওই বাড়ির বড় ছেলে সাদেক হোসেন সাদ্দাম (৩০)। এ বিষয়ে পুলিশের কাছে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন সাদ্দাম। পুলিশ জানায়, জায়গা জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে ১৫দিন আগ থেকে হত্যার পরিকল্পনা করে সে। 

সম্পৃক্ততা না মেলায় জিজ্ঞাসাবাদের পর ছেড়ে দেয়া হয়েছে সাদ্দামের স্ত্রীকে।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) দিবাগত রাত ৩টায় উপজেলার ৩নং জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মধ্যম সোনাপাহাড় গ্রামের মোস্তফা সওদাগরের বাড়িতে এই ট্রিপল মার্ডারের ঘটনা ঘটে।

আলোচিত ট্রিপল হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় থানায় বাদি হয়ে বড় ভাইয়ের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা করেছেন নিহত নুরুল মোস্তফা সওদাগরের একমাত্র মেয়ে জুলেখা। নিহতরা হলেন, স্থানীয় নতুন বাজারের মুদি ব্যবসায়ী নুরুল মোস্তফা সওদাগর (৬০), তার স্ত্রী জোসনা আক্তার (৫০) ও তাদের মেজ ছেলে আহমদ হোসেন (২৫)।

নিহত মো. মোস্তফার ছোট ছেলে আলতাফ হোসেন বলেন, ‘ভোর রাতে বড় ভাই সাদেক হোসেন আমাকে ফোন দিয়ে বলেন, “বাড়িতে ডাকাত এসেছিল, বাবা, মা ও মেজো ভাইকে জবাই করে ফেলেছে। তুই তাড়াতাড়ি আয়। তাদের হাসপাতালে নিতে হবে।” আমি বাড়িতে এসে দেখি, বাবা-মা আর মেজো ভাইয়ের নিথর দেহ ঘরের ভেতর পড়ে আছে। রাতে বাড়িতে বাবা-মা, বড় ভাই ও তার স্ত্রী আইনুর নাহার, তাদের চার বছর বয়সী ছেলে এবং মেজো ভাই আহমদ হোসেন ছিলেন। আমি চাকরির কারণে বারইয়ারহাট মাছের আড়তে থাকি। আমার বাবা কিছু জায়গা-জমি মেজো ভাই আহমদকে দিয়েছিলেন। ওটা নিয়ে বাবা-মায়ের সঙ্গে বড় ভাইয়ের প্রায়ই ঝগড়া হতো।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ