ঢাকা, রোববার 17 October 2021, ১ কার্তিক ১৪২৮, ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী
Online Edition

কুমিল্লায় পূজামণ্ডপে কোরআন অবমাননার অভিযোগ, এলাকায় উত্তেজনা

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: কুমিল্লার একটি পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন অভিযোগ ঘিরে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

বুধবার সকাল ১০টার দিকে কুমিল্লা শহরের নানুয়ারদীঘি এলাকার একটি পূজামণ্ডপের মূর্তির পায়ে কোরআন রাখার খবর ছড়িয়ে পড়ার পর পুলিশ গিয়ে তা উদ্ধার করে।

তবে ওই এলাকার পূজা উদযাপন কমিটির সম্পাদক নির্মল পাল দাবি করেন, পূজা বানচালের জন্য পরিকল্পিতভাবে মূর্তির পায়ের নীচে কোরআন রাখা হয়েছে।

এ ব্যাপারে জেলা পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ বলেন, তারা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছেন। আমরা টহল দিচ্ছি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় এক ব্যবসায়ী বলেছেন, বেলা ১১টার দিকে হঠাৎ কোরআন অবমাননা হয়েছে, এমন খবর ছড়িয়ে পড়ে শহর জুড়ে।

তিনি বলেন, ১০টার পর নানুয়ারদীঘির মণ্ডপে কোরআন নজরে পড়লে দ্রুত পুলিশকে জানানো হয় এবং পুলিশ তখনই এসে কোরআনটি সরিয়ে নেয়। এ নিয়ে স্থানীয় লোকজন প্রতিবাদ জানিয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই ব্যবসায়ী বলেন, কয়েকটি গুলির শব্দ শোনা গেলেও সেগুলো কোথায় হয়েছে তা বোঝা যায়নি।

এ দিকে পূজামণ্ডপ থেকে কোরআন উদ্ধার করার পর পরই বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এ নিয়ে ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

এদিকে এ ঘটনা খতিয়ে দেখার কথা বলেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ