রবিবার ২৮ নবেম্বর ২০২১
Online Edition

জামাল ভূঁইয়ার শর্টস-বিভ্রাট!

স্পোর্টস রিপোর্টার: সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে শুভ সূচনা করেছেন জামাল ভূঁইয়ারা। শুক্রবারের জয়ের পাশাপাশি অধিনায়ক জামালের জার্সি ও শর্টসের নম্বরের অমিলের বিষয়টিও ব্যাপকভাবে আলোচনায় উঠে আসে।

বাংলাদেশ দলের ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার জামাল ভূঁইয়া ‘৬’ নম্বর জার্সিতে খেলে আসছেন। কিন্তু এ ম্যাচে জার্সি নম্বর ঠিক থাকলেও শর্টস ছিল ‘৫’ নম্বরের! শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে কিছুক্ষণ খেলার পর নিজের ভুল বুঝতে পারেন বাংলাদেশ দলের এই কান্ডারী। পরবর্তীতে ‘৬’ নম্বর শর্টস পরে ম্যাচের বাকি সময় খেলেছেন এই মিডফিল্ডার। আন্তর্জাতিক ম্যাচে এ রকম ভুল হওয়ায় বেশ বিস্ময়ের সৃষ্টি হয়েছে। জাতীয় দলের অধিনায়কের শর্টস-জার্সির নাম্বারে ভিন্নতা থাকায় সামাজিক মাধ্যমে অনেক সমালোচনা ও হাস্যরসাত্মক মন্তব্য হচ্ছে। তবে এ রকম ভুলের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট খেলোয়াড় ও রেফারির দায়টাই বেশি। খেলোয়াড়রা কয়েক ধাপ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে মাঠে নামেন। রেফারি, ম্যাচ কমিশনার খেলোয়াড় তালিকার নম্বর অনুযায়ী ড্রেসিং রুমে ডাক দেন। তখন ওই খেলোয়াড় সামনে আসেন। 

তখন রেফারি খেলোয়াড় তালিকার সঙ্গে জার্সি ও প্যান্টের নাম্বার ঠিক আছেন কি না দেখেন। খেলোয়াড়ের ভুলের পাশাপাশি রেফারির দৃষ্টিও এড়িয়ে গেছে জামালের বিষয়টি।অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়ার জার্সি-শর্টস নম্বর বিভ্রাটের বিষয়টি সাফেরও নজরে এসেছে। বাফুফে ও সাফ উভয় পক্ষ খেলোয়াড়ের ভুলের পাশাপাশি রেফারির ভুলকেই বড় করে দেখা হচ্ছে। এই অনাকাঙ্খিত ভুলের পর টিম ম্যানেজম্যান্ট খেলোয়াড়দের এবং সাফও রেফারিকে আরও মনোযোগী হওয়ার অনুরোধ জানিয়েছে। 

এ প্রসঙ্গে জাতীয় দলের ম্যানেজার সত্যজিত দাশ রুপু বলেছেন, ‘ওয়ার্ম-আপ করে আসার পর ড্রেসিংরুমে ৫ ও ৬ নম্বর জার্সি একসঙ্গেই ছিল। জামাল ভুলে ৫ নম্বর শর্টস পরে খেলেছে। ও আসলে খেয়াল করতে পারেনি। বিষয়টি তার নজরে আনার পর ৬ নম্বর পরেই খেলেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ