শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২
Online Edition

প্রয়োজনে  কারাফটকে জিজ্ঞাসাবাদ ইভ্যালির রাসেলকে আর রিমান্ডে  পেল না পুলিশ ॥ কারাগারে

স্টাফ রিপোর্টার: গ্রেপ্তারের পর দুই দফায় চার দিন হেফাজতে রেখে জিজ্ঞাসাবাদের পর ইভ্যালির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রাসেলকে আরও পাঁচ দিন হেফাজতে রাখতে চাইছিল পুলিশ। কিন্তু আদালতে সেই আবেদনে সায় না দিয়ে রাসেলকে কারাগারে পাঠিয়ে দিয়েছে। প্রয়োজনে তাকে কারাফটকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে বলা হয়েছে পুলিশকে।

গুলশান থানায় এক গ্রাহকের করা প্রতারণার মামলায় রাসেল এবং তার স্ত্রী ইভ্যালির চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনকে গত ১৬ সেপ্টেম্বর গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। এরপর দুজনকেই আদালতের অনুমতি নিয়ে চার দিন হেফাজতে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ। সেই জিজ্ঞাসাবাদ শেষ হওয়ার পর ধানম-ি থানায় করা আরেক গ্রাহকের মামলায় আরও একদিনের জন্য রাসেলকে রিমান্ডে নেওয়া হয়। তবে তখন শামীমাকে রিমান্ডে না দিয়ে পাঠানো হয় কারাগারে।

গতকাল বৃহস্পতিবার আবার রাসেলকে ঢাকার আদালতে হাজির করে ধানম-ি থানায় করা নতুন একটি মামলায় পাঁচ দিনের জন্য হেফাজতে রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আবুল কালাম আজাদ। ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মো. হাসিবুল হক রাসেলকে কারাগারে পাঠিয়ে তিন কার্যদিবসের মধ্যে এক দিন কারাফটকে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেন।

রাসেলের পক্ষে ব্যারিস্টার এম মনিরুজ্জামান আসাদ জামিনের আবেদন করেছিলেন। তবে তা নাকচ করে দেন বিচারক। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ