সোমবার ২৪ জানুয়ারি ২০২২
Online Edition

আনোয়ারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অধিকাংশ বেডে বিড়ালের মলসহ নোংরা আবর্জনা

এস, এম, সালাহ্উদ্দীন, আনোয়ারা (চট্টগ্রাম) : চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গরীব ও অসহায় রোগীদের একমাত্র ভরসাস্থল। কিন্তু এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা নেয়ার আগ্রহ হারিয়ে ফেলছেন রোগীরা। করোনার এই সময়ে দেশের সকল হাসপাতালে কোন বেড খালি না থাকলেও এই হাসপাতালে প্রায় বেডই খালি। চিকিৎসা সেবা না পাওয়াতে অথবা প্রায় রোগীকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করাতে রোগীরা এই হাসপাতালে আসতে চায় না। সরেজমিনে দেখা যায়, হাসপাতালে ভূতড়ে পরিবেশ বিরাজ করছে। ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে ময়লা-আবর্জনা। হাসপাতালের অধিকাংশ বেডই খালি। কয়েকটি বেডের উপরে শুয়ে আছে বিড়াল। ফাঁকা শয্যায় তারা আয়েশ করছে। ওয়ার্ডে ও রোগীর বিছানায় বিড়াল কুকুর বিচরণ করলেও দেখার যেন কেউ নেই। হাসপাতালের মেঝেতে বিড়ালের মলসহ নোংরা আবর্জনা ও দুর্গন্ধময় পরিবেশ বিরাজ করছে। রোগীর স্বজনরা জানিয়েছেন হাসপাতালের বিছানা ও পরিবেশ এমন অবস্থায় রয়েছে রোগীর সাথে আসা একজন সুস্থ মানুষও হাসপাতালে এসে অসুস্থ হয়ে পড়বে। বৈরাগ গ্রাম হতে ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিতে আসা মোহাম্মদ আকতার হোসেন জানান, আমি মেডিকেলে চিকিৎসার জন্য প্রবেশ করে চিকিৎসা না নিয়ে ফেরত যাচ্ছি। মনে হয় এই মেডিকেলের কোন অভিভাবক নেই। মেডিকেলে ভর্তি হওয়া কয়েকজন রোগীর সাথে কথা বললে তারা জানান, আমরা ভর্তি হয়েছি সকালে কিন্তু পাশের সীটে বিড়ালে মলগুলো পরিষ্কার করে দিতে বললেও কেউ কথা শোনেন না। তাছাড়া বেডের বেডশিট ও বালিশগুলো খুবই অপরিষ্কার।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ