ঢাকা, বৃহস্পতিবার 28 October 2021, ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী
Online Edition

এবার অফিস বন্ধ কিউকমের

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: ইভ্যালির অনুকরণে অর্ধেক মূল্যে পণ্য দেওয়ার ঘোষণা দিয়ে গ্রাহকদের কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ ওঠার পর অফিস বন্ধ করে দিয়েছে আলোচিত আরেক ই-কমার্স সাইট কিউকম।

তারা দাবি করছে পাওনাদার ও গ্রাহকদের চাপ সামলাতে না পেরে কার্যালয় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

বুধবার মধ্যরাতে ফেইসবুক লাইভে এসে অফিস বন্ধ করে বাসায় বসে কাজ করার ঘোষণা দেন এই কোম্পানির উদ্যোক্তা ও সিইও রিপন মিয়া এবং তার সহযোগী সাবেক রেডিও জকি (আরজে) নিরব।

এই সময়ে গ্রাহকদেরকে তাদের বাসাবাড়ির নিচে ভিড় না করার অনুরোধও করেন তারা।

করোনাভাইরাস মহামারীকালে ই-কমার্সের প্রসার ঘটার পাশাপাশি বিভিন্ন সাইট খুলে প্রলোভন দেখিয়ে গ্রাহকদের কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে কয়েকটি ‍ই-কমার্স সাইটের বিরুদ্ধে। সেই অভিযোগে ই-অরেঞ্জ এবং ইভ্যালির মালিকরা ইতোমধ্যে গ্রেপ্তার হয়েছে।

ইভ্যালির অনুকরণে যাত্রা শুরু করে কিউকমও গ্রাহকের কোটি কোটি টাকা আটক করেছে বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভুক্তভোগীদের মন্তব্য থেকে জানা যাচ্ছে।

ইভ্যালির গ্রাহকরা কত টাকা পাবেন, সেই তথ্য উদঘাটন করলেও অন্য কোনো ই-কমার্সের তথ্য এখনও সংগ্রহ শুরু করেনি বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

অর্ধেক মূল্যে পণ্য দেওয়ার ঘোষণা দিয়ে মোটর সাইকেলসহ এই ধরনের সৌখিন পণ্যের অর্ডারই বেশি নিয়েছে কিউকম।

কয়েক সপ্তাহ আগে কিউকমের তেজগাঁও কার্যালয়ে গিয়ে দেখা যায়, শত শত গ্রাহক তাদের পণ্য অথবা টাকা বুঝে পেতে ভিড় জমিয়েছেন। কিন্তু দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষার পর নতুন একটি তারিখ নিয়ে খালি হাতেই ফিরছিলেন তারা।

চারজন ভুক্তভোগীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, তাদের সবাই বাজাজ কোম্পানির বিভিন্ন মূল্যের মোটর সাইকেল কিনতে টাকা জমা দিয়েছেন। নির্ধারিত মেয়াদ শেষে কাস্টমার কেয়ার থেকে ২/৩ বার তারিখ পরিবর্তনের পরও বাইক না পেয়ে তারা চলে এসেছেন অফিসে।

এই পরিস্থিতি চলার মধ্যে বুধবার কার্যালয়গুলো বন্ধ করে দিয়ে ‘হোম অফিস’ চালুর ঘোষণা দেয় কিউকম।

ই-অরেঞ্জ ও ইভ্যালি নিয়ে আলোচনার মধ্যে ধামাকা, আলাদীনের প্রদীপ, সিরাজগঞ্জ শপও ইতোমধ্যেই বন্ধ হয়ে গেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ