শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২
Online Edition

আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীর ইন্তিকালে শিবিরের গভীর শোক 

 

 দেশের শীর্ষ ইসলামী চিন্তাবিদ, উপমহাদেশের প্রখ্যাত আলেমে দ্বীন, দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদরাসার প্রধান মুহাদ্দিস, লক্ষ লক্ষ আলেমের উস্তাদ, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ-এর আমীর আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী রাহিমাহুল্লাহর ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির। 

গতকাল দেয়া যৌথ শোক বার্তায় ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি সালাহউদ্দিন আইউবী ও সেক্রেটারি জেনারেল রাশেদুল ইসলাম বলেন, সর্বজন শ্রদ্ধেয় আলেমে দ্বীন আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী রহিমাহুল্লাহ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে চট্টগ্রাম নগরীর সিএসসিআর  হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তিকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিঊন)। তাঁর ইন্তিকালে জাতি এক মহান অভিভাবককে হারালো। তিনি শুধু বাংলাদেশ নয় বরং দক্ষিণ এশিয়ার একজন উজ্জল নক্ষত্র। তিনি নিজে যেমন জ্ঞানী আলেমে দ্বীন ছিলেন তেমনি তিনি বাংলার জমিনে লক্ষ লক্ষ আলেম তৈরিতে ভূমিকা রেখেছেন। তিনি ইসলামের বিভিন্ন বিষয়ে অনেকগুলো বই লিখেছেন। 

অন্যদিকে তিনি ছিলেন দল-মত নির্বিশেষে সবার নিকট শ্রদ্ধাভাজন ব্যক্তিত্ব। তিনি দেশে ইসলাম ও ইসলামী আন্দোলনের প্রসার, আলেম সমাজকে ঐক্যবদ্ধকরণ ও ইসলামবিরোধী সকল কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে সোচ্চার ভূমিকা রেখেছেন। ইসলাম, দেশের স্বাধীনতা ও মানুষের অধিকার রক্ষায় তিনি ছিলেন আপোষহীন। ভারতে বাবরী মসজিদ ধ্বংসের প্রতিবাদ, ফারাক্কাবাঁধ নির্মাণের প্রতিবাদ, তাসলিমা নাসরীন কর্তৃক ইসলাম অবমাননার বিরুদ্ধে আন্দোলন, সরকারের ফতোয়াবিরোধী আইন প্রণয়নের প্রতিবাদ ও নাস্তিক্যবাদ বিরোধী আন্দোলনে তিনি প্রথম সারিতে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন। হেফাজতে ইসলাম প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে তিনি আলেম সমাজ ও সাধারণ জনগণকে একত্রিত করে তীব্র গণআন্দোলন সৃষ্টি করে আল্লাহর রহমতে নাস্তিক্যবাদের আস্ফালন স্তব্ধ করে দিয়েছিলেন। দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় তাঁর ভূমিকা ছিলো অত্যন্ত বলিষ্ঠ। আপোষহীন অবস্থানে থেকে দ্বীনের দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে তিনি বহুবার আওয়ামী সরকারের জুলুম নির্যাতনের শিকার হন। দীর্ঘ দিন রিমান্ডে নিয়ে নির্যাতনের ফলে তিনি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। বাতিলের নির্মম নির্যাতন বা প্রলোভন কোন কিছুই তাকে সত্য ও ন্যায়ের পথ থেকে বিচ্যুৎ করতে পারেনি। জাতির ক্রান্তিকালে তাঁর মত প্রবীণ আলেমে দ্বীনের ইন্তিকাল হলো। ইসলাম, দেশ ও জনগণের জন্য তাঁর গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা আলেম সমাজ ও জাতি চিরকাল মনে রাখবে ইনশা-আল্লাহ।

আমরা মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনা করছি এবং তাঁর শোক সন্তপ্ত পরিবার-পরিজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি। আল্লাহ তায়ালা আমাদের প্রিয় এ আলেমে দ্বীনকে জান্নাতুল ফেরদৌসের মেহমান হিসেবে কবুল করুন। আমীন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ