ঢাকা, মঙ্গলবার 28 September 2021, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮, ২০ সফর ১৪৪৩ হিজরী
Online Edition

পরীমনি-রাজের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে র‍্যাব

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: ঢাকাই সিনেমার বিতর্কিত নায়িকা পরীমনি ও চলচ্চিত্র প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজের বিরুদ্ধে নিষিদ্ধ পর্নগ্রাফি নির্মাণ ও মাদক ব্যবসার অভিযোগে মামলা হচ্ছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

বুধবার রাতে ঢাকার বনানীর বাড়ি থেকে পরীমনিকে তুলে নেওয়ার পর একই এলাকার আরেক বাড়ি থেকে র‌্যাব আটক করে চলচ্চিত্র প্রযোজক নজরুল ইসলাম রাজকে।

পরীমনি ও রাজ দুজনকে নিয়ে যাওয়া হয় উত্তরার র‌্যাব সদর দপ্তরে। 

র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক এএসপি আ ন ম ইমরান খান রাত ১১টার দিকে বলেন, ‘সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতেই’ পরীমনি ও রাজকে আটক করা হয়েছে, খবর বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের।

“তাদের বিরুদ্ধে মামলা হলে সেই মামলায় তাদের গ্রেপ্তার দেখানো হবে,” বলেন তিনি।

তাদের বিরুদ্ধে কী মামলা হবে, তা বলেননি এই র‌্যাব কর্মকর্তা। তবে আটকের সময় দুজনের বাড়ি থেকে ইয়াবা, বিদেশী মদ, ভয়ঙ্কর মাদক এলএসডি-আইস ও পর্নগ্রাফি তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করতে দেখা গেছে র‌্যাব সদস্যদের।

তিন দিন আগে পুলিশের অভিযানে মডেল ফারিয়া মাহবুব পিয়াসা ও জাহানারা মৌকে আটকের পর তাদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা করা হয়েছিল।

বুধবার দুপুরের পর পরীমনির বাড়িতে র‌্যাবের একটি দল উপস্থিত হলে তাকে গ্রেপ্তারের গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে।

র‌্যাব সদস্যরা বাড়ির ফটকে যাওয়ার পরপরই বিকাল ৪টার দিকে ফেইসবুক লাইভে এসে ঘটনার বর্ণনা দিতে থাকেন পরীমনি। তিনি বলেছিলেন যে তিনি ‘ভয় পাচ্ছেন’।

প্রায় এক ঘণ্টা পর র‌্যাব সদস্যরা ঘরে ঢোকার পর তার লাইভ বন্ধ হয়ে যায়।

তার প্রায় ৩ ঘণ্টা পর র‌্যাব সদস্যরা তাকে আটক করে নিয়ে যায়।

তখনই রাজের বাড়িতে অভিযান শুরুর কথা বলেছিলেন র‌্যাবের গোয়েন্দা শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল খায়রুল ইসলাম।

পরীমনি সম্প্রতি এক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ তুলে তুমুল আলোচনার জন্ম দেন। ওই মামলায় ঢাকা বোট ক্লাবের সদস্য ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তিনি জামিনে ছাড়া পান।

নড়াইলের মেয়ে শামসুন্নাহার স্মৃতির ২০১৫ সালে ঢাকার চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে পরীমনি নামে। এরপরই নানা বিতর্কের জন্ম দিতেন থাকেন তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ