বুধবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

খুলনা বিভাগে করোনায় ৪৬ জনের মৃত্যু ॥ শনাক্ত ১১৮৬

খুলনা অফিস : খুলনা বিভাগে ২৪ ঘন্টায় বেড়েছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু। এসময়ে কমেছে শনাক্তের সংখ্যা। গত ২৪ ঘন্টায় অদৃশ্য এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে শনাক্ত হয়েছে ১ হাজার ১৮৬ জনের। এর আগে রোববার (২৫ জুলাই) বিভাগে ৪৫ জনের মৃত্যু এবং ১ হাজার ২৭৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল।
খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগের মধ্যে সর্বোচ্চ ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে কুষ্টিয়া জেলায়। বাকিদের মধ্যে খুলনায় ১১ জন, যশোরে ১১ জন, বাগেরহাট ও মেহেরপুরে তিনজন করে; নড়াইল ও মাগুরায় ২ জন করে এবং ঝিনাইদহে একজন মারা গেছেন।
খুলনা বিভাগের মধ্যে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় চুয়াডাঙ্গায় গত বছরের ১৯ মার্চ। করোনা সংক্রমণের শুরু থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত বিভাগের ১০ জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছে ৮৮ হাজার ২৪৮ জন। আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২ হাজার ২১৭ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৬২ হাজার ৫৮২ জন।
এদিকে রোববার (২৫ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে সোমবার (২৬ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় খুলনার পাঁচটি হাসপাতালে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে করোনায় ১৪ জন ও করোনা উপসর্গে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। খুলনা করোনা হাসপাতালে ৮ জন, শহীদ শেখ আবু নাসের হাসপাতালের করোনা ইউনিটে তিনজন, খুলনা জেনারেল হাসপাতালে একজন, বেসরকারি সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দু’জন এবং গাজী মেডিকেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চারজনের মৃত্যু হয়েছে।
খুলনা ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালের ফোকাল পার্সন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, হাসপাতালে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আটজনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে করোনায় চারজন এবং করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও চারজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন- খুলনা মহানগরীর রায়পাড়া এলাকার ফজলুল রহমান (৭০), টুটপাড়ার সাহিদা বেগম (৬২), ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুরের বজলুল (৬৫) ও একই জেলার পশ্চিমপাতিয়া এলাকার আ. রহমান (৪৬)। হাসপাতালটিতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১০৯ জন। যার মধ্যে রেড জোনে ৪২ জন, ইয়ালো জোনে ৩৪ জন, আইসিইউতে ২০ জন এবং এইচডিইউতে ১৩জন। গত ২৪ ঘন্টায় ভর্তি হয়েছেন ১০ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৬ জন।
খুলনার শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. প্রকাশ দেবনাথ জানান, হাসপাতালে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন-নগরীর দৌলতপুর পাবলার তহমিনা বেগম (৮৪), বাগেরহাটের ফকিরহাটের গাউস শেখ (৬৫) ও নড়াইলের কালিয়ার নয়ন ঘোষ (৩৫)। হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি রয়েছেন ৩৬ জন। তার মধ্যে আইসিইউতে রয়েছে ১০ জন। গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২ জন।
খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. কাজী আবু রাশেদ জানান, গত ২৪ ঘন্টায় হাসপাতালে নগরীর মহসিন রোডের আবুল বাশার ফারাজী (৫৫) নামে এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে। চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৩৩ জন। এরমধ্যে ১৭ জন পুরুষ ও ১৬ জন মহিলা। গত ২৪ ঘন্টায় ভর্তি হয়েছেন ৩ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪ জন।
খুলনা সিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘন্টায় দুইজন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন- খুলনা মহানগরীর বাগমারা মেইন রোডের শিখা রানী রায়(৫৫) ও ডুমুরিয়ার শাহপুর থুকড়া আফিয়া খানম (৩৫)। হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ৬৯ জন ভর্তি রয়েছেন। গত ২৪ ঘন্টায় ভর্তি হয়েছেন ১৩ জন আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১১ জন। আইসিইউতে ৭ জন এবং এইচডিইউতে ৫ জন ভর্তি রয়েছে।
গাজী মেডিকেল হাসপাতালের স্বত্বাধিকারী ডা. গাজী মিজানুর রহমান জানান, গত ২৪ ঘন্টায় হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় চারজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন-খুলনা জেলার ডুমুরিয়ার পলাশ সরকার (৩৬), নগরীর টুটপাড়ার তরিকুল (৬৩), ধর্মসভা এলাকার স্বপ্না (৪২) ও দৌলতপুরের মাহাবুবা (৪২)। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৯১ জন। গত ২৪ ঘন্টায় ভর্তি হয়েছেন ১৯ জন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮ জন। আইসিইউতে ৭ জন এবং এইচডিইউতে ৫ জন ভর্তি রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ