ঢাকা, মঙ্গলবার 28 September 2021, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮, ২০ সফর ১৪৪৩ হিজরী
Online Edition

লকডাউনে শিল্প কারখানা খুললে ব্যবস্থা: প্রতিমন্ত্রী

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: মহামারী নিয়ন্ত্রণের লকডাউনের মধ্যে কোনো শিল্প কারখানা খুললে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

ঈদ পরবর্তী কঠোর লকডাউনের চতুর্থ দিন সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি এই হুঁশিয়ারি দেন।

করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে এর আগে কয়েকদফা লকডাউনে শিল্প কারখানা খোলা রাখা হয়েছিল।

কিন্তু মহামারীর দ্বিতীয় ঢেউয়ে সংক্রমণ ও মৃত্যু লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ায় গত ২৩ জুলাই থেকে শুরু হওয়া লকডাউনে শিল্প কারখানাও বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে সরকার।

এর মধ্যেও কিছু শিল্প কারখানা খোলা রাখা হচ্ছে বলে খবর মিলছে।

তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হবে কি না-  প্রশ্ন করা হলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী বলেন, “কেউ কারখানা খুলে থাকলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মাঠ প্রশাসনকে নির্দেশনা দিয়েছি।”

সংক্রমণ যে গতিতে ছড়াচ্ছে, তাতে এখন কঠোর বিধিনিধেষের কোনো বিকল্প নেই বলে মন্তব্য করেন তিনি।

কোরবানির পশুর চামড়া সংশ্লিষ্ট খাত, খাদ্যপণ্য এবং কোভিড-১৯ প্রতিরোধে পণ্য ও ওষুধ উৎপাদনকারী শিল্প প্রতিষ্ঠান ‘কঠোর’ বিধিনিষেধের আওতার বাইরে রয়েছে।

দেশের রপ্তানি আয়ের প্রধান খাত তৈরি পোশাক শিল্প মালিকরা কারখানা খোলার দেনদরবার করলেও তাদের হতাশ করেছেন ফরহাদ হোসেন।

তিনি বলেছেন, লকডাউনের মধ্যে পোশাক কারখানা খোলা নিয়ে সরকারের এখন পর্যন্ত কোনো চিন্তাভাবনা নেই।

মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বিশেষ কোনো নির্দেশনা দিয়েছেন কি না- জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী বলেন, “করোনা যে পরিস্থিতিতে ছড়িয়ে গেছে, এ বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে।

“আমরা কঠিনভাবেই তো প্রজ্ঞাপন জারি করেছি। এ ব্রেকটা খুব দরকার। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন, আমাদের সংক্রমণ কমানোর জন্য ব্রেক প্রয়োজন। ব্রেকটার জন্য এটাই উপযুক্ত কৌশল, সেটি হচ্ছে বিধিনিষেধ।”

বিধি-নিষেধ কঠোরভাবে পালনের কথা থাকলেও সড়কে চলাচল বাড়ছে।  

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ