শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

ইসরাইলী বাহিনীর ঠাণ্ডা মাথায় খুনের শিকার ফিলিস্তিনী কিশোর

২৫ জুলাই, মিডল ইস্ট আই : ফিলিস্তিনের এক কিশোরকে গুলী করে হত্যা করেছে দখলদার ইসরাইলি বাহিনী। পশ্চিমতীরে ইসরাইলের আগ্রাসন ও অবৈধ বসতি স্থাপনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে অংশ নিয়েছিল ওই কিশোর। বিক্ষোভে ইসরাইলি বাহিনী গুলী চালালে সে গুলীবিদ্ধ হয়।  ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

১৭ বছর বয়সি ওই কিশোরের নাম মোহাম্মদ মুনির আল তামিমি। নাবি সালেহ গ্রামে বিক্ষোভের সময় তার পেটে গুলী করে ইসরাইলি বাহিনী। গুরুতর আহত এই কিশোর পরে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে।

তামিমির মায়ের দাবি, ইসরাইলি বাহিনী তাকে ঠাণ্ডা মাথায় খুন করেছে। একটি ভিডিও দেখা গেছে, ইসরাইলি বাহিনী তার ঘরের দরজা খুলে শরীরে গুলী করে।

গত শুক্রবারের বিক্ষোভে ইসরাইলি হামলায় ৩২০ ফিলিস্তিনি আহত হওয়ার পর তামিমির মৃত্যুর ঘটনা ঘটল। পশ্চিম তীরের বেইতা গ্রামে এটি ৯ম লাইভ ফায়ারে হত্যার ঘটনা।

তবে ইসরাইলি সেনাবাহিনীর দাবি, সহিংসতায় তাদের দুজন সেনা আহত হয়েছেন।

এদিকে রেড ক্রিসেন্ট বলছে, ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে ইসরাইলি বাহিনীর সংঘাতে এখন পর্যন্ত ৩২০ ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন। এর মধ্যে ২১ জন গুলীবিদ্ধ হয়েছেন, রাবার বুলেটে জখম হয়েছেন ৬৮ জন এবং অন্যদের ওপর টিয়ার গ্যাস ছোড়া হয়েছে।

ফিলিস্তিনি গণমাধ্যম জানিয়েছে, ওই কিশোরের জানাজায় শত শত ফিলিস্তিনি অংশ নিয়েছেন। তার লাশ নিয়েও বিক্ষোভ করতে দেখা গেছে। ফিলিস্তিনের বেইতা অঞ্চলে দখলদার ইসরাইল অবৈধভাবে বসতি স্থাপন করছে বলে অভিযোগ রয়েছে। এর প্রতিবাদেই সেখানে বিক্ষোভ করে আসছেন ফিলিস্তিনিরা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ