রবিবার ২৮ নবেম্বর ২০২১
Online Edition

রাজশাহীতে করোনায় একদিনে আরো ১১ মৃত্যু ॥ নতুন ১০১ জন আক্রান্ত

রাজশাহী: কঠোর লকডাউনে গতকাল শনিবার রাজশাহী মহানগরীর দৃশ্য -সংগ্রাম

রাজশাহী অফিস : রাজশাহীতে করোনায় একদিনে আরো ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ১০১ জন। অন্যদিকে নগরীতে কঠোর লকডাউনে জনশূন্য হয়ে পড়েছে সড়ক-মহাসড়ক।
গত একদিনে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ৭ জন এবং উপসর্গ নিয়ে আরো ৪ জনসহ মোট ১১ জন মারা গেছেন। শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে শনিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত এই সময়ের মধ্যে তাদের মৃত্যু হয়। শনিবার সকালে রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী জানান, রামেক হাসপাতালের করোনা ইউনিটে সংক্রমণে সাতজন ও উপসর্গে চারজন মারা গেছেন। মৃতদের মধ্যে ছয়জন পুরুষ ও পাঁচজন নারী। মৃতদের মধ্যে রাজশাহীর ৬ জন, নাটোরের একজন, নওগাঁর একজন, পাবনার দুইজন ও কুষ্টিয়ার একজন। তিনি আরো বলেন, করোনায় মৃতদের মধ্যে রাজশাহীর ৪ জন, নওগাঁর একজন, পাবনার একজন ও কুষ্টিয়ার একজন। অন্যদিকে উপসর্গ নিয়ে রাজশাহীর দুইজন, নাটোরের একজন ও পাবনার একজন মারা গেছেন। তিনি জানান, গত একদিনে রামেকে নতুন ভর্তি হয়েছেন ৫৭ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩৭ জন। রামেকে করোনা আক্রান্ত হয়ে ১৯৪ জন ও উপসর্গ নিয়ে ২২৫ জন ভর্তি রয়েছেন। গত একদিনে রামেকে ৫১৩টি শয্যার বিপরীতে রোগী ভর্তি ছিলেন ৪১৯ জন।
এদিকে রাজশাহীতে ২৪ ঘন্টায় ১০১ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার রাজশাহী মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে রাজশাহী, নওগাঁ ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের মোট ১৯২ জন রোগীর করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এদের মধ্যে রাজশাহীর ৪৬ জনের করোনার নমুনা পরীক্ষা করে ২৪ জন এবং নওগাঁর ৫৩ জনের করোনার নমুনা পরীক্ষা করে ১৩ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। তবে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২ জনের করোনার নমুনা পরীক্ষা করে তাদের সকলেরই করোনা নেগেটিভ আসে।
কঠোর লকডাউন
করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ঈদের পর রাজশাহীতে চলছে ‘কঠোর লকডাউন’। এর দ্বিতীয় দিনেও রাজশাহী নগরীতে বিরাজ করছে নিস্তব্ধতা। প্রধান সড়কগুলোতে হাতে গোনা দু’একটি রিকশা, মোটরসাইকেল, প্রাইভেট কার এবং জরুরি সেবার গাড়ি চলাচল করতে দেখা গেছে। কাঁচাবাজার ও মুদি দোকান ছাড়া শহরের সব মার্কেটের দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। বন্ধ রয়েছে দূরপাল্লার যানবাহন চলাচল। লকডাউন বাস্তবায়নে তৎপর থাকতে দেখা গেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে। শনিবার নগরীর কোর্ট বাজার, বিন্দুর মোড়, শিরোইল বাস টার্মিনাল, রেলওয়ে স্টেশন, সাহেববাজার, নিউমার্কেট, তালাইমারী নিউ মার্কেটসহ নগরীর গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোর রাস্তাঘাট একেবারেই ফাঁকা। নির্দেশনার আওতাধীন সকল দোকানপাট বন্ধ রাখতে দেখা গেছে। নগরীর গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে পুলিশসহ অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের অবস্থান নিয়ে থাকতে দেখা যায়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ