সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

আজ জিতলেই ওয়ানডে সিরিজ বাংলাদেশের

রফিকুল ইসলাম মিঞা : জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে জয় দিয়ে শুরু করেছে বাংলাদেশ। আজ সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ। আজ জিতলেই এক ম্যাচ আগেই ওয়ানডে সিরিজ নিশ্চিত করবে টাইগাররা। ফলে আজ জয়ের টার্গেট নিয়েই মাঠে নামবে বাংলাদেশ। হারারেতে বাংলাদেশ সময় দুপুর দেড়টায় ম্যাচটি শুরু হবে। জিম্বাবুয়ে সফরে একমাত্র টেস্টে জয় দিয়ে শুরু করেছিল বাংলাদেশ। টেস্ট সিরিজ জয়ের পর ওয়ানডে সিরিজও জয়ের কথা জানিয়েছিলেন অধিনায়ক তামিম ইকবাল। প্রথম ম্যাচে বড় জয়ে সে পথটা সহজ করে রেখেছে বাংলাদেশ। আজ দ্বিতীয় ম্যাচ জিতে সিরিজ জয়ের কাজটা সেরে রাখতে মাঠে নামবে তামিমরা। প্রথম ম্যাচে ওপেনার লিটনের সেঞ্চরি আর সাকিবের ৫ উইকেট নেয়া ম্যাচে সহজে জয় পায় বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে লিটন ছাড়াও ভালো ব্যাটিং করেছেন মাহমুদঊল্লাহ, আফিফ হোসেন ও মেহেদী হাসান মেরাজ। ফলে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ ৯ উইকেটে করেছিল ২৭৬ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর। যা টপকাতে গিয়ে ১২১ রানেই অলআউট হয় জিম্বাবুয়ে। অবশ্য ওয়ানডে সিরিজে মাঠে নামার আগে মুশফিকের দেশে ফেরা আর মোস্তাফিজের দলে না থাকায় কিছুটা টেনশন ছিল। তবে ম্যাচে এই দুই ক্রিকেটারের অভাবটা টের পেতে দেয়নি লিটনদাস আর সাকিব আল হাসান। এই দুই ক্রিকেটারের পারফরমেন্সে বড় জয় নিয়েই মাঠ ছেড়েছে বাংলাদেশ। আজ অবশ্য দ্বিতীয় ম্যাচেই মাঠে ফিরতে পারেন মোস্তাফিজুর রহমান। এমন সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। এছাড়া প্রথম ম্যাচে পর লিটন দাসের ইনজুরি নিয়েও শঙ্কায় ছিল দ্বিতীয় ম্যাচে লিটন মাঠে নামতে পারবেন কিনা। তবে স্বস্তির খবর লিটন আজ মাঠে নামছেন। টিম লিডার আহমেদ সাজ্জাদুল আলম ববি জানিয়েছেন,‘আশা করছি লিটন দাস কাল (আজ) খেলতে পারবেন। কোন সমস্যা হবে না বলেই মনে করা হচ্ছে। তবে লিটনের আরও একদফা ফিটনেস পরীক্ষা দিতে হবে।’  মোস্তাফিজকে নিয়ে আহমেদ সাজ্জাদুল আলম ববি বলেন,‘ভাবা হচ্ছে মোস্তাফিজও হয়ত খেলতে পারবেন। তারপরও তার খেলার আগে মোস্তাফিজের ফিটনেসটা খুঁটিয়ে দেখা হবে। সেখানে উৎরে গেলেই হয়ত ১৮ জুলাই আজ দ্বিতীয় ম্যাচে খেলবে মোস্তাফিজ।’ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে জয়ের পর খুশি অধিনায়ক তামিম ইকবাল। আজ দ্বিতীয় ম্যাচেও এই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চান এই অধিনায়ক।  জয়ের পর তামিম ইকবাল বলেন,‘জিম্বাবুয়ে প্রথম ১৫ ওভারে দারুণ বল করেছে। আমরা দ্রুত কিছু উইকেট হারিয়েছি। তবে লিটন , মাহমুদউল্লাহ, আফিফ আর মিরাজ  যেভাবে ব্যাট করেছে তাতে আমরা বড় স্কোর গড়তে পেরেছি। মাহমুদউল্লাহ, লিটন তো বটেই, আফিফের ইনিংসটিও ছিল স্পেশাল। এমনকি মিরাজের ইনিংসটিও গুরুত্বপূর্ণ ছিল। ওই সময় আমরা দুটি উইকেট হারিয়েছি। ওই সময় আরেকটি উইকেট হারালে হয়তো ২০-৩০ রান কম হতো। শুধূ ব্যাটিংয়েই নয়। ২৭৬ রানের পুঁজি নিয়ে বোলাররা ধারেকাছে আসতে দেয়নি জিম্বাবুয়েকে। সাকিব ব্যাটে বড় রান না পেলেও বল হাতে দুর্দান্ত পারফর্ম করে নেন ৫ উইকেট। শুধু তার বোলিংয়েই নয়, বোলারদের সার্বিক পারফরম্যান্সেই আমি খুশি।’ তবে প্রথম ম্যাচে টপ অর্ডারের ব্যর্থতা নিয়েও অভিযোগ আছে তামিমের। কারণ  জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ৭৪ রান তুলতেই ৪ উইকেট হারায় বাংলাদেশ। যা তাদের পুরোপুরি ব্যাকফুটে ঠেলে দেয়। টপ অর্ডারদের এ ব্যর্থতা মোটেই আদর্শ নয় মনে করছেন টাইগার দলপতি তামিম ইকবাল। তিনি আশা করছেন আজ দ্বিতীয় ম্যাচে টপ অর্ডারে ভালো খেলতে হবে। প্রথম ওয়ানডেতে ব্রেন্ডন টেইলরদের বিপক্ষে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ব্লেসিং মুজারাবানির পেস তোপে তামিম ফেরেন শূন্য হাতে। সাকিবকেও ১৯ রানে ক্রিজ ছাড়া করেন এই স্বাগতিক পেসার। চারে নামা মোহাম্মদ মিঠুনও সাকিবকে অনুসরণ করেন। আর মোসাদ্দেক নিজের এপিটাফ লেখেন মাত্র ৫ রানে। এতে করে নিদারুণ চাপে পড়ে বাংলাদেশ। ওয়ানডে অধিনায়ক বলেন, ‘উন্নতির তো কোনো শেষ নেই। তবে কম রানে তিনটা উইকেট পড়ে যাওয়া আদর্শ না। টপ অর্ডার থেকে আমি বা সাকিব যদি আরেকটু ভালো খেলি, তাহলে দল হয়তো এমন অবস্থায় পড়বে না। চেষ্টা করব যে পরের ম্যাচে এমন সুযোগ এলে কাজে লাগাতে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ