রবিবার ২৮ নবেম্বর ২০২১
Online Edition

ঝিনাইদহের অধ্যক্ষ নূর মুহাম্মাদের ইন্তিকালে জামায়াত আমীরের শোক

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় মজলিসে শূরার সাবেক সদস্য, ঝিনাইদহ জেলা শাখার সাবেক সেক্রেটারি ও ঝিনাইদহ সদর উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যক্ষ নূর মুহাম্মাদ করোনা রোগে আক্রান্ত হয়ে গত শুক্রবার দিবাগত রাত ১টায় ৭৫ বছর বয়সে ইন্তিকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিঊন)। তিনি ২ পুত্র ও ১ কন্যাসহ বহু আত্মীয়-স্বজন রেখে গিয়েছেন। গতকাল সকাল ১১টায় ঝিনাইদহ আলিয়া মাদরাসা মাঠে জানাযা শেষে তাঁকে ঝিনাইদহ কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
শোকবাণী : অধ্যক্ষ নূর মুহাম্মাদের ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করে জামায়াতে ইসলামীর আমীর ডা. শফিকুর রহমান শোকবাণী দিয়েছেন।  
শোকবাণীতে তিনি বলেন, বর্ষীয়ান জননেতা অধ্যক্ষ নূর মুহাম্মাদ ৯ জুলাই দিবাগত রাত ১টায় করোনা রোগে আক্রান্ত হয়ে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে মর্মান্তিকভাবে ইন্তিকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিঊন)। আমি তাঁর ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করছি। তিনি একজন জনদরদি নেতা ছিলেন। ঝিনাইদহ সদর উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত সাবেক চেয়ারম্যান হিসেবে তিনি তাঁর নিজ এলাকায় বহু উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন এবং অসহায় দরিদ্র মানুষের সেবা করে গিয়েছেন। মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীন তার জীবনের সকল খেদমত কবুল করুন। সেই সাথে মহান রবের নিকট বিগলিত চিত্তে দোয়া করছি, তিনি যেন তাকে শাহাদাতের মর্যাদা দান করেন এবং তাঁর শোকাহত পরিবার-পরিজনদেরকে এ শোক সহ্য করার তাওফিক দান করুন। আমীন।
আবদুর রশিদ মাস্টারের ইন্তিকাল : জামায়াতে ইসলামী রংপুর জেলার পীরগাছা উপজেলা শাখার প্রবীণ সদস্য (রুকন) পারুল ইউনিয়নের অবিরাম নিবাসী আবদুর রশিদ মাস্টার বার্ধক্যজনিত কারণে ৯ জুলাই রাত পৌনে ৮টায় ৮০ বছর বয়সে ইন্তিকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিঊন)। তিনি স্ত্রী, ২ পুত্র ও ৬ কন্যাসহ বহু আত্মীয়-স্বজন রেখে গিয়েছেন। গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় সেচাকান্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে জানাযা শেষে তাঁকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
শোকবাণী: আবদুর রশিদ মাস্টারের ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করে জামায়াতে ইসলামীর আমীর ডা. শফিকুর রহমান শোকবাণী দিয়েছেন।  
শোকবাণীতে তিনি বলেন, আবদুর রশিদ মাস্টারের ইন্তিকালে আমরা ইসলামী আন্দোলনের একজন নিবেদিত প্রাণ দাঈকে হারালাম। তিনি ইসলামী আন্দোলনের প্রচার ও প্রসারে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে গিয়েছেন। দ্বীন কায়েমের একনিষ্ঠ সেবক জনাব আবদুর রশিদ মাস্টার ইসলামী আন্দোলনের জন্য অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন এবং ন্যায় ও ইনসাফ ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে গিয়েছেন। আমি তাঁর ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করছি।
শোকবাণীতে তিনি আরো বলেন, ইতোমধ্যে তিনি দুনিয়ার সফর শেষ করেছেন। শুরু হয়েছে তাঁর অনন্তকালের সফর। এই সফরে আল্লাহ্ রাব্বুল আলামীন তাঁর একান্ত সাহায্যকারী হোন। কবর থেকে শুরু করে পরবর্তী প্রত্যেকটি মঞ্জিলকে তাঁর জন্য সহজ, আরামদায়ক ও কল্যাণময় করে দিন। আল্লাহ তায়ালা তাঁর জীবনের সকল নেক আমল কবুল করে তাঁকে জান্নাতে উচ্চ মাকাম দান করুন এবং তাঁর শোকাহত পরিবার-পরিজনদেরকে এ শোক সহ্য করার তাওফিক দান করুন। আমীন।
খয়বর হোসেনের ইন্তিকাল : জামায়াতে ইসলামী কুড়িগ্রাম জেলার ভূরুঙ্গামারী উপজেলা শাখার প্রবীণ সদস্য (রুকন) ও ইউনিট সভাপতি মোঃ খয়বর হোসেন শ্বাসকষ্টজনিত কারণে আক্রান্ত হয়ে ৯ জুলাই রাত ৯টায় ৮০ বছর বয়সে ইন্তিকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিঊন)। তিনি স্ত্রী, ৩ পুত্র ও ৩ কন্যাসহ বহু আত্মীয়-স্বজন রেখে গিয়েছেন। গতকাল বাদ জোহর জানাযা শেষে তাঁকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
শোকবাণী: মোঃ খয়বর হোসেনের ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করে জামায়াতে ইসলামীর আমীর ডা. শফিকুর রহমান শোকবাণী দিয়েছেন।
শোকবাণীতে তিনি বলেন, মোঃ খয়বর হোসেনের ইন্তিকালে আমরা ইসলামী আন্দোলনের একজন নিবেদিত প্রাণ দাঈকে হারালাম। ইসলামী আন্দোলনের প্রচার ও প্রসারে তাঁর অনেক অবদান রয়েছে এবং তিনি ন্যায় ও ইনসাফ ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে গিয়েছেন। আমি তাঁর ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করছি।
শোকবাণীতে তিনি আরো বলেন, ইতোমধ্যে তিনি দুনিয়ার সফর শেষ করেছেন। শুরু হয়েছে তাঁর অনন্তকালের সফর। এই সফরে আল্লাহ্ রাব্বুল আলামীন তাঁর একান্ত সাহায্যকারী হোন। কবর থেকে শুরু করে পরবর্তী প্রত্যেকটি মঞ্জিলকে তাঁর জন্য সহজ, আরামদায়ক ও কল্যাণময় করে দিন। আল্লাহ তায়ালা তাঁর জীবনের সকল নেক আমল কবুল করে তাঁকে জান্নাতে উচ্চ মাকাম দান করুন এবং তাঁর শোকাহত পরিবার-পরিজনদেরকে এ শোক সহ্য করার তাওফিক দান করুন। আমীন।
অপর এক যুক্ত শোকবাণীতে জামায়াতে ইসলামী কুড়িগ্রাম জেলা শাখার আমীর মাওলানা আবদুল মতিন ফারুকী ও সেক্রেটারি মাওলানা নিজাম উদ্দিন গভীর শোক প্রকাশ করে বলেন, মোঃ খয়বর হোসেন ইসলামী আন্দোলনের জন্য অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন এবং তিনি সর্বাবস্থায় আন্দোলনের কাজকে অগ্রাধিকার দিতেন। আমরা তাঁর ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করছি। আল্লাহ তায়ালা তাঁর জীবনের সকল নেক আমল কবুল করে তাঁকে জান্নাতে উচ্চ মর্যাদা দান করুন এবং তাঁর শোকাহত পরিবার-পরিজনদেরকে এ শোক সহ্য করার তাওফিক দান করুন।
আবদুল লতিফ মাস্টারের ইন্তিকাল : জামায়াতে ইসলামী পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলা শাখার প্রবীণ সদস্য (রুকন) আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের উত্তর সোনাখালী পশুড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা এবং তমিজিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক আবদুল লতিফ মাস্টার বার্ধক্যজনিত কারণে ৯ জুলাই দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় ৮৬ বছর বয়সে ইন্তিকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিঊন)। তিনি স্ত্রী, ২ পুত্র ও ৪ কন্যাসহ বহু আত্মীয়-স্বজন রেখে গিয়েছেন। গতকাল বিকাল ৪টায় নিজ বাড়িতে জানাযা শেষে তাঁকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।
শোকবাণী: আবদুল লতিফ মাস্টারের ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করে জামায়াতে ইসলামীর আমীর ডা. শফিকুর রহমান শোকবাণী দিয়েছেন।
শোকবাণীতে তিনি বলেন, আবদুল লতিফ মাস্টারের ইন্তিকালে আমরা ইসলামী আন্দোলনের একজন নিবেদিত প্রাণ দাঈকে হারালাম। ইসলামী আন্দোলনের প্রচার ও প্রসারে তাঁর অনেক অবদান রয়েছে এবং তিনি ন্যায় ও ইনসাফ ভিত্তিক সমাজ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে গিয়েছেন। আমি তাঁর ইন্তিকালে গভীর শোক প্রকাশ করছি।
শোকবাণীতে তিনি আরো বলেন, ইতোমধ্যে তিনি দুনিয়ার সফর শেষ করেছেন। শুরু হয়েছে তাঁর অনন্তকালের সফর। এই সফরে আল্লাহ্ রাব্বুল আলামীন তাঁর একান্ত সাহায্যকারী হোন। কবর থেকে শুরু করে পরবর্তী প্রত্যেকটি মঞ্জিলকে তাঁর জন্য সহজ, আরামদায়ক ও কল্যাণময় করে দিন। আল্লাহ তায়ালা তাঁর জীবনের সকল নেক আমল কবুল করে তাঁকে জান্নাতে উচ্চ মাকাম দান করুন এবং তাঁর শোকাহত পরিবার-পরিজনদেরকে এ শোক সহ্য করার তাওফিক দান করুন। আমীন। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ