শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

চলনবিলে মাছ ধরার ফাঁদ ‘চাঁই’ বিক্রির হাট জমে উঠেছে

তাড়াশের নওগাঁ হাটে বিক্রি করা হচ্ছে মাছ ধরার চাঁই -সংগ্রাম

শাহজাহান, তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ): দেশীয় মাছের জন্য বিখ্যাত চলনবিল। শুরু হয়েছে বর্ষা মৌসুম। ক'দিন পরই চলনবিলের মাঠঘাট বর্ষার পানিতে ভরে উঠবে। সেই সঙ্গে চলনবিলের বিশাল জলরাশিতে প্রায় ৩-৪ মাস পেশাদার ও সৌখিন মৎস্য শিকারিদের মাছ শিকারের ধুম পড়বে।
এরই মধ্যে চলনবিলে মাছ শিকারের নানা উপকরণ যেমন- চাঁই তৈরিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন বিলপাড়ের মৌসুমি কারিগররা। বিল অঞ্চলে ব্যাপক চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে চাঁই তৈরির সঙ্গে জড়িত কারিগররা ঘরে বসেই মাছ শিকারের যাবতীয় দেশীয় উপকরণ তৈরি করে থাকেন। বিশেষ করে চলনবিল অধ্যুষিত নাটোর জেলার গুরুদাসপুর উপজেলার ধারাবরিষা, চলনালি, শিধুলী, চরকাদহ, উদবারিয়া, পোয়ালশুড়া, সোনাবাজু, বড়াইগ্রাম উপজেলার মাড়িয়া, শ্রীরামপুর ও সিরাজগঞ্জ জেলার তাড়াশ, উল্লাপাড়া, পাবনার চাটমোহর, ভাঙ্গুড়াসহ চলনবিলের বিভিন্ন উপজেলার অনেক গ্রামের চাঁই তৈরির কারিগররা ভালো দাম পাওয়ায় বহু বছর ধরে মৌসুমি এ পেশার মাধ্যমে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন। বর্তমান বর্ষা মৌসুমের শুরুতেই চলনবিলের চাঁই বিক্রির জন্য প্রসিদ্ধ চাঁচকৈড়, কাছিকাটা, ছাইকোলা, হান্ডিয়াল, নওগাঁ, মির্জাপুর, সলঙ্গাসহ ২০ থেকে ২৫টি হাটে তৈরি নতুন চাঁইয়ে ভরে উঠেছে। তবে বাঁশের দাম বেড়ে যাওয়ায় বাজারে চাঁইয়ের দামও বেড়েছে বলে জানান পাবনার ভাঙ্গুড়ার মদন মোহন দাস।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ