শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষায় ঢাকাকে সবুজের নগরীতে পরিণত করতে হবে -নূরুল ইসলাম বুলবুল

গতকাল শনিবার বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের উদ্যোগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন দলের কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও মহানগরীর আমীর নূরুল ইসলাম বুলবুল -সংগ্রাম

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের আমীর জননেতা নূরুল ইসলাম বুলবুল বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন ঘোষণা করে বলেন, প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষায় ঢাকাকে সবুজের নগরীতে পরিণত করতে হবে। স্বাভাবিক ও শান্তিপূর্ণ জীবনযাপনে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা জরুরি। আর ভারসাম্যপূর্ণ ও দূষণমুক্ত পরিবেশ তৈরিতে সবচেয়ে বড় ভূমিকা পালন করে গাছ। মহানবী (সা.) পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বৃক্ষরোপণ ও তা পরিচর্যার কথা উল্লেখ করে বিভিন্ন হাদিসে উৎসাহ ও নির্দেশনা দিয়েছেন। হাদিসে এসেছে, ‘যদি কোনো মুসলমান একটি বৃক্ষ রোপণ করে অথবা  কোনো শস্য উৎপাদন করে এবং তা থেকে কোনো মানুষ কিংবা পাখি অথবা পশু ভক্ষণ করে, তবে তা উৎপাদনকারীর জন্য সদকা (দান) স্বরূপ গণ্য হবে।’ তাই আমাদের শ্লোগান “গাছ লাগান, দেশ বাঁচান”।
গতকাল শনিবার সকালে রাজধানীর ডেমরায় বৃক্ষরোপন ও চারাগাছ বিতরণকালে তিনি এ কথা বলেন। জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সেক্রেটারি ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদের পরিচালনায় বৃক্ষরোপন ও চারাগাছ বিতরণ কর্মসূচিতে আরও উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মজলিশে শুরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সহকারী সেক্রেটারি মুহা. দেলাওয়ার হোসেন, কেন্দ্রীয় মজলিশে শুরা সদস্য ও ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের কর্মপরিষদ সদস্য আব্দুস সবুর ফকির, অধ্যাপক মোকাররম হোসাইন খান, ডেমরা থানা আমীর মোহাম্মদ আলী, পল্টন থানা সেক্রেটারি শাহীন আহমদ খানসহ জামায়াতের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।
নূরুল ইসলাম বুলবুল বলেন, পরিবেশ বিপর্যয়ের দিক থেকে ঢাকা খুবই বিপদজনক অবস্থায় অবস্থান করছে। এমতাবস্থায় পরিবেশ রক্ষার স্বার্থে দল মত নির্বিশেষে সবার পরিবেশ রক্ষা ও সংরক্ষণের কাজে অংশ নেয়া উচিৎ। সে লক্ষ্যে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী সাধারণ মানুষের মাঝে গাছের চারা বিতরণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। সেই সাথে আমরা বিপুল সংখ্যক বৃক্ষরোপন ও বিতরণের মাধ্যমে ঢাকা নগরীকে সবুজের নগরীতে পরিনত করতে চাই। তিনি সর্বস্তরের জনগণের কাছে আহবান জানিয়ে বলেন, পরিবেশ বিপর্যয়ের হাত থেকে দেশকে রক্ষার জন্য নাগরিক হিসেবে আমাদের দায়িত্বের জায়গা থেকে আসুন আমরা প্রত্যেকে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে কমপক্ষে ৩টি করে গাছ রোপন করি। ঢাকা মহানগরীকে সবুজের নগরীতে পরিণত করার জন্য আমাদের এই বৃক্ষরোপন কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ। একইসাথে তিনি সরকারি ও বেসরকারি উদ্যোগে বৃক্ষরোপণের কর্মসূচীর উপর গুরুত্বারোপ করেন।
ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ বলেন, আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের পরিবেশ স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে সবাইকে গাছ লাগাতে হবে। ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকা পরিবেশগত ভাবে ভারসাম্যহীন হয়ে যাচ্ছে বলে পরিবেশবিদরা মনে করেন। সেই সমস্যা নিয়ে আমরা বসে থাকতে পারি না। জামায়াত একটি দায়িত্বশীল সংগঠন, বৃক্ষরোপণের মাধ্যমে পরিবেশ রক্ষার একাজে অবশ্যই আমরা ভূমিকা পালন করে যাবো ইনশাআল্লাহ। প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ