শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর ২০২২
Online Edition

শাহজাদপুরে কর্মসৃজন প্রকল্পে কাজ করছে ৫ হাজার শ্রমিক

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) : পোতাজিয়া ইউনিয়নের রাউতারা কর্মসৃজন প্রকল্পে কাজ করছে হতদরিদ্র নারীরা

এম,এ, জাফর লিটন, শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) : সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে দ্রুত এগিয়ে চলছে সরকার গৃহীত অতিদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত কর্মসৃজন প্রকল্পের কাজ। সেই সাথে বদলে যাচ্ছে গ্রামীণ জনপদের রাস্তাঘাটের দৃশ্যপট।  জানা গেছে, উপজেলার খুকনি, জালালপুর, কৈজুরী, পোরজনা, হাবিবুল্লাহ নগর, বেলতৈল, রুপবাটি, গারাদাহ, নরিনা, কয়েমপুর, পোতাজিয়া, গালা ও সোনাতনী ইউনিয়নে কর্মসৃজনের কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে,। ইউনিয়ন চেয়ারম্যানদের তত্ত্বাবধানে চলছে এ কর্মসৃজন প্রকল্পের কাজ। এ বছর প্রথম ধাপের কর্মসৃজনে খুকনী ইউনিয়নে ৪টি প্রকল্পে ৪৬২ জন, জালালপুর ইউনিয়নের ২ টি প্রকল্পে ২৪৭ জন, কৈজুরী ইউনিয়নে ৭ টি প্রকল্পে মোট ৫১৭ জন শ্রমিকসহ উপজেলায় ১৩টি ইউনিয়নে মোট ৫ হাজার ৫শ ৫৫ জন শ্রমিক কাজ করে যাচ্ছে।
এই কর্মসৃজনের কারণে ইউনিয়নগুলিতে নিম্নাঞ্চলের মানুষের চলাচলের রাস্তা তৈরি হচ্ছে। এর ফলে ঐ সব অজপাড়াগার মানুষের চলাচলের এক নতুন দিগন্তের সূচনা হচ্ছে।  এলাকাবাসী জানায়, আমাদের দীর্ঘদিনের দাবি ছিলো এই রাস্তাগুলি তৈরি করে দেয়া হোক। সেই দাবি অনুযায়ি কর্মসৃজনের আওতায় এই রাস্তাগুলি করা হচ্ছে। এর ফলে আমরা অনায়াশে যাতায়াত করতে পারবো এবং আমাদের ছেলে মেয়েরা স্কুল কলেজে যাতায়াতে আর ভোগান্তি পোহাতে হবে না।
এ ব্যাপারে, ইউনিয়ন পরিষদের  চেয়ারম্যানবৃন্দ বলেন, এলাকাবাসীর যাতায়াতের কথা চিন্তা করেই আমরা কর্মসৃজন প্রকল্পের আওতায় গুরুত্বসহকারে এই রাস্তাগুলি তৈরি করে দিচ্ছি। এ প্রকল্পের আওতায় যেমন, গ্রামের মানুষের চলাচলের রাস্তা তৈরী হচ্ছে, অপরদিকে কিছু বেকার মানুষের ৪০ দিনের কর্মসংস্থানেরও সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে।
এব্যাপারে, শাহজাদপুর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ বলেন, প্রকল্পের কাজ সুষ্ঠ ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন করার জন্য প্রকল্প পরিদর্শন করছি। চেয়ারম্যান মেম্বরদের নির্দেশনা দেওয়া আছে কাজটি সুন্দরভাবে সম্পন্ন করার জন্য।
এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ মোঃ শামসুজ্জোহা বলেন, কর্মসৃজন প্রকল্পের কাজ সুষ্ঠ ও সুন্দরভাবে সম্পন্ন করার জন্য দ্বায়িত্বপ্রাপ্তদের নির্দেশনা দেওয়া আছে। স্বচ্ছতার সাথে কাজ সম্পন্ন করতে হবে। কোথাও কোনো অনিয়ম হলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ