ঢাকা, বুধবার 29 September 2021, ১৪ আশ্বিন ১৪২৮, ২১ সফর ১৪৪৩ হিজরী
Online Edition

অনিয়ন্ত্রিত গতিতে ভূপৃষ্ঠে আছড়ে পড়তে পারে চীনের ২১ টন ওজনের রকেট

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: চীনা বিজ্ঞানীদের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়া উপগ্রহবাহী একটি ভারী রকেট অচিরেই পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে প্রবেশ করে ভূপৃষ্ঠে আছড়ে পড়তে পারে। সম্প্রতি চীন থেকে নিক্ষেপ করার পর ‘লং মার্চ ৫-বি’ নামের ২১ টন ওজনের রকেটটি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায়।

মার্কিন নিউজ চ্যানেল সিএনএন-এর বরাত দিয়ে রুশ বার্তা সংস্থা স্পুৎনিক এ খবর জানিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়- পেন্টাগনের মুখপাত্র মাইক হাওয়ার্ড বলেছেন, রকেটটির সম্ভাব্য আছড়ে পড়ার স্থান সম্পর্কে এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, মার্কিন সেনাবাহিনীর স্পেস বিভাগের কমান্ডের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, রকেটটি আগামী ৮ মে নাগাদ পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে প্রবেশ করতে পারে। বর্তমানে রকেটটি প্রচণ্ড গতিতে মহাকাশের কক্ষপথে ঘুরতে থাকায় এটির গতিপথ শনাক্ত করা কঠিন; তবে ভূপৃষ্ঠে আছড়ে পড়ার কয়েক ঘণ্টা আগে বলে দেয়া যাবে এটি ঠিক কোন স্থানে পড়বে।

এদিকে আমেরিকার হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর অ্যাস্ট্রো ফিজিক্সের বিজ্ঞানী জনাথন ম্যাকডোয়েল সিএনএনকে বলেছেন, “আমরা ধারনা করছি রকেটটি আগামী ৮ থেকে ১০ মে’র মধ্যে পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে প্রবেশ করবে। এ সময়ের মধ্যে চীনা উপগ্রহবাহী রকেটটি প্রতি দুই দিনে পৃথিবীকে ৩০ বার প্রদক্ষিণ করবে। এ সময়ে ঘণ্টায় এটির গতি থাকবে ১৮ হাজার মাইল (প্রায় ২৯ হাজার কিলোমিটার)। কাজেই আপনি যদি এক ঘণ্টার হিসাবে গড়মিল করেন তাহলে এটি আপনার ধারণার স্থান থেকে ১৮ হাজার মাইল দূরে কোথাও আছড়ে পড়বে।”

পৃথিবীর কক্ষপথে নিজের একটি মহাকাশ স্টেশন বানাতে যাচ্ছে চীন। প্রকল্পের নাম- ‘তিয়ানহে মহাকাশ স্টেশন’। এটি উৎক্ষেপণের জন্য কিছুদিন ধরেই প্রস্তুতি নিচ্ছে দেশটি। ওই মহাকাশ স্টেশনের একটি ‘মডিউল’ (অংশ) পরীক্ষামূলকভাবে পৃথিবীর কক্ষপথে পাঠাতে গত ২৮ এপ্রিল লং মার্চ ৫বি রকেট উৎক্ষেপণ করেছিল চীনা মহাকাশ গবেষণা সংস্থা।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ