সোমবার ১৮ অক্টোবর ২০২১
Online Edition

জৈন্তাপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৭ জনের পরিবারের পাশে মিয়া গোলাম পরওয়ার

সিলেটের জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারকে সমবেদনা ও আর্থিক অনুদান প্রদানকালে উপস্থিত শোকাহত গ্রামবাসীর উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার

সম্প্রতি সিলেট জেলার জৈন্তাপুর উপজেলার ফেরিঘাট ও দরবস্ত বাজারে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৭ জনের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী। গতকাল মঙ্গলবার জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ারের নেতৃত্বে জামায়াতের প্রতিনিধি দল সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের জৈন্তাপুর ও কানাইঘাটস্থ বাড়িতে গিয়ে পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান ও মাগফেরাত কামনা করে মোনাজাত করেন। এসময় নিহত প্রত্যেকের পরিবারকে নগদ ৫০ হাজার টাকা করে প্রদান করা হয়।
জামায়াত নেতৃবৃন্দ- গত ২ মে নিহত জৈন্তাপুর রুপচেং গ্রামের জালাল উদ্দিনের স্ত্রী সাবিয়া বেগম, জামাল আহমদের মেয়ে শাকিয়া বেগম ও ছেলে শাহাদাত হোসেন, রুপচেং গ্রামের মৃত আরজান আলীর মেয়ে হাবিবুন নেছা, পাখিবিল গ্রামের মৃত আরব আলীর ছেলে হোসেন আহমদ এবং ৩ মে নিহত কানাইঘাট নয়াগ্রামের আশিক আহমদ ও হাফিজ সুলতান আহমদ মিনহাজের গ্রামের বাড়ীতে যান। প্রত্যেক পরিবারের হাতে নগদ অনুদান তুলে দেন।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদের সদস্য ও সিলেট অঞ্চল পরিচালক এডভোকেট এহসানুল মাহবুব জুবায়ের, কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য ও সাবেক এমপি অধ্যক্ষ মাওলানা ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী, কেন্দ্রীয় মজলিসে শুরা সদস্য ও সিলেট মহানগরী আমীর মুহাম্মদ ফখরুল ইসলাম, সিলেট জেলা উত্তরের আমীর হাফিজ আনোয়ার  হোসাইন খান, নায়েবে আমীর মাওলানা ফয়জুল্লাহ বাহার ও সেক্রেটারি জয়নাল আবেদীন,  জেলার উত্তরের সাবেক নায়েবে আমীর মাওলানা আব্দুল মান্নান প্রমুখ। এছাড়াও এসময় জৈন্তাপুর উপজেলা ও কানাইঘাট উপজেলা জামায়াত নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এ সময় অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রকট আকার ধারণ করেছে। এসব দুর্ঘটনায় বাড়ছে মৃত্যু। স্বজন হারাচ্ছে অনেক পরিবার। কোন কোন পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তিকে হারিয়ে খুব কষ্টে দিনাতিপাত করছে। এছাড়া আহত হয়ে অনেকেই জীবনের মতো পঙ্গু হয়ে বসে আছে। সড়ক দুর্ঘটনা রোধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের পাশাপাশি সরকারকে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ও আহতদের পরিবারের পাশে সরকার ও বেসরকারি বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের এগিয়ে আসা উচিত। ইসলামী সমাজ বিনির্মাণের প্রত্যয়দীপ্ত মজলুম কাফেলা বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী সামর্থ অনুযায়ী সড়ক দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে। প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ