শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

পরিবর্তন আনতে হবে এই দশকেই

মানুষের মধ্যে আছে কত সম্ভাবনা। মানুষ কত বড় হতে পারে তার উদাহরণ আমরা লক্ষ্য করেছি ইতিহাসের পাতায়। এমন মানুষেরা মিলেতো গড়তে পারে সুন্দর পৃথিবী। সুন্দর পৃথিবীতে মানুষ তথা মানবজাতি শান্তিতে আনন্দময় জীবনযাপন করবে। এমন ভাবনাইতো স্বাভাবিক। এমন ভাবনায় যেন ছেদ পড়তে যাচ্ছে। নয়তো বিখ্যাত মানুষেরা কেন বলতে যাবেন, বড় হুমকির মুখে পড়তে পারে মানবজাতি। তাহলে কি বড় মানুষ, প্রকৃত মানুষের অভাব পড়েছে বর্তমান পৃথিবীতে? পৃথিবীতেতো এখন অনেক কাজ হচ্ছে। বড় বড় দেশের বড় বড় নেতারাতো বিশ্বের রাজনীতি, অর্থনীতি, পরিবেশ-প্রতিবেশ, জীববৈচিত্র্য নিয়ে অনেক ব্যস্ত। তারপরও মানবজাতি হুমকির মুখে পড়তে যাবে কেন? তাহলে কি বর্তমান বিশ্বব্যবস্থা ঠিক পথে চলছে না?
জলবায়ু পরিবর্তন ঠেকাতে ব্যর্থতা, প্রকৃতি বিনাশ ও অন্যান্য বৈশ্বিক সংকট মানবজাতির জন্য বিশাল হুমকি সৃষ্টি করেছে বলে সতর্ক করেছেন ১০ জন নোবেলজয়ী। প্রথমবারের মতো নোবেল প্রাইজ সম্মেলনের পর গত ২৯ এপ্রিল বৃহস্প্রতিবার এ যৌথ বিবৃতিেিত তারা এ সতর্কতার কথা জানান বলে খবর দিয়েছে প্যারিস থেকে এএফপি। যৌথ বিবৃতিতে নোবেলজয়ীরা বলেন; উৎপাদন, বিতরণ ও ভোগব্যবস্থা থেকে শুরু করে সবকিছুতে ব্যাপক পরিবর্তনই কেবল সম্ভাব্য বিপর্যয় থেকে মানবজাতিকে রক্ষা করতে পারে। ওই বিবৃতিতে বিশ্বের শীর্ষ ২০ গবেষণা প্রতিষ্ঠানও স্বাক্ষর করেছে। নোবেলজয়ীরা বলেন, ‘পৃথিবী নামক এই গ্রহের সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক নতুন করে গড়ে তোলার সময় এসেছে। এই দশকেই পরিবর্তনমূলক পদক্ষেপ না নিলে মানবজাতি ভবিষ্যতে বড় ধরনের ঝুঁকিতে পড়তে যাচ্ছে।
করোনা মহামারির ঝুঁকি নিয়েও সতর্ক করেছেন নোবলবিজয়ীরা। বিবৃতিতে তারা বলেন, প্রাকৃতিক আবাসস্থল ধ্বংস, উচ্চমাত্রার নেটওয়ার্ক ভিত্তিক সমাজ ও সামাজিক নেটওয়ার্কগুলোতে ভুয়া সংবাদ ছড়ানোর কারণে মহামারির ঝুঁকি এখন বেশি। তারা বলেন, ‘আমাদের প্রজাতিগুলোর সুরক্ষা নিশ্চিত করে, এমন বৈশ্বিক প্রাকৃতিক সম্পদগুলোর সুরক্ষা ও সংরক্ষণ করতে হবে’ একই সঙ্গে নোবেলজয়ীরা সতর্ক করে বলেন, আগামী দশক খুবই ঝুঁকিপূর্ণ। এই সময়ের মধ্যে বৈশ্বিক গ্রিনহাউজ গ্যাস অর্ধেকে কমিয়ে আনা, প্রাকৃতিক পরিবেশের ধ¦ংস রোধ এবং আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনা প্রয়োজন। বিবৃতিদাতা নোবেলজয়ীদের মধ্যে রয়েছেন, যুক্তরাষ্ট্রের কলাম্বিয়া ইউনিভার্সিটির অর্থনীতিবিদ জোসেফ ই স্টিগলিৎজ, হার্ভার্ডের অলিভার হার্ট, স্টানফোর্ড ইউনিভার্সিটির ভৌত রসায়নবিদ উইলিয়াম মোয়েরনার প্রমুখ। নোবেলজয়ীরা বলেছেন, বড় হুমকির মুখে পড়তে পারে মানবজাতি। এই সতর্কবার্তার সাথে তারা হুমকির কারণগুলোও উল্লেখ করেছেন। এখন বর্তমান বিশ্বব্যবস্থার যারা শাসক তাঁদের এগিয়ে আসতে হবে দায়িত্ব পালনে। ভুলের আরাম কেদারায় আর বসে থাকার সময় নেই। ব্যাপক পরিবর্তন আনতে হবে এই দশকেই।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ