শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

হেফাজত নেতা শাখাওয়াত-মঞ্জুরুল ২১ ও কোরবান আলী ৭ দিনের রিমান্ডে

স্টাফ রিপোর্টার: হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় সহকারী মহাসচিব মুফতি শাখাওয়াত হোসাইন রাজী ও কেন্দ্রীয় সহকারী মহাসচিব এবং জমিয়তে ওলামায়ে ইসলামের মহাসচিব মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দির ২১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। গতকাল বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম মামুনুর রশীদ শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। এদিকে ঢাকা মহানগর হেফাজতে ইসলামের সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা কোরবান আলীর সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।
এ দিন পাঁচ দিনের রিমান্ড শেষে মুফতি শাখাওয়াত হোসাইন রাজী ও মহাসচিব মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দিকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদেরকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করে পুলিশ। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এরপর মতিঝিলের দুই মামলা ও পল্টন থানার এক মামলায় গ্রেফতার দেখানোর পর দশ দিন করে ত্রিশ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম প্রত্যেক মামলায় সাত দিন করে ২১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। তিন মামলার মধ্যে চলতি বছরের দুই মামলা ও ২০১৩ সালের হেফাজতের তাণ্ডবের ঘটনায় পল্টন থানায় এক মামলা রয়েছে।
আসামিপক্ষের আইনজীবী সৈয়দ জয়নাল আবেদীন মেজবাহ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পাঁচ দিনের রিমান্ড শেষে তাদের ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় মতিঝিলের দুই মামলায় ও পল্টনের এক মামলায় তাদের দশ দিন করে ত্রিশ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে বিচারক প্রত্যেক মামলায় সাত দিন করে ২১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।
কোরবান আলী ৭ দিনের রিমান্ডে: প্রায় আট বছর আগে রাজধানীতে হেফাজতের ঢাকা অবরোধের ঘটনায় করা মামলায় ঢাকা মহানগর হেফাজতে ইসলামের সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা কোরবান আলীর সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। গতকাল বুধবার তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় ২০১৩ সালের পল্টন থানার মামলায় সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাকে ১০ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মামুনুর রশীদ তার সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রাজধানীর বাসাবো এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ৫ মে ঢাকা অবরোধ করে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা। পুলিশ জানায়, এ অবরোধ কর্মসূচির নামে লাঠিসোটা, ধারালো অস্ত্র ও আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে রাজধানীর মতিঝিল, পল্টন ও আরামবাগসহ আশপাশের এলাকায় যানবাহন ও সরকারি-বেসরকারি স্থাপনায় ব্যাপক ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগ করে হেফাজতের কর্মীরা। এ ঘটনায় পল্টন থানায় মামলা করা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ