রবিবার ২০ জুন ২০২১
Online Edition

বিশেষ ফ্লাইটে সৌদি ও ওমান গেলেন প্রবাসী কর্মীরা

স্টাফ রিপোর্টার : করোনা রোধে দেশে চলমান বিধিনিষেধের মেয়াদ আরও সাত দিন বাড়ানো হতে পারে। সেই দিনগুলোতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দেশের অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট  চালু করতে চায় বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। আজ সোমবার  আন্তঃমন্ত্রণালয়ের বৈঠকে এ প্রস্তাব দেবে বেবিচক।
করোনা সংক্রমণের হার ও মৃত্যুর বেশি থাকায় করোনা নিয়ন্ত্রণে সরকার গঠিত জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটিও টানা দুই সপ্তাহ বিধিনিষেধ দেওয়ার সুপারিশ দিয়েছে। তাই ধারণা করা হচ্ছে বিধিনিষেধের মেয়াদ ২১ এপ্রিল থেকে বাড়ানো হতে পারে। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতেই সোমবার বৈঠকে বসবে আন্তঃমন্ত্রণালয়।
বৈঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, বিমান মন্ত্রণালয়ের সচিব, বেবিচক চেয়ারম্যান, বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালকের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে। বেবিচক চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম. মফিদুর রহমান বলেন, ‘আমি এবং বেবিচক সবসময় চাই যেন ফ্লাইট চালু থাকে। আমরা এ লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি। ইতোমধ্যে পাঁচ দেশের ফ্লাইট চালু হয়েছে। আগামীকাল আন্তঃমন্ত্রণালয়ের বৈঠকে আমি স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফ্লাইট চালুর প্রস্তাব করব।’
তিনি বলেন, ‘ফ্লাইট বন্ধের কারণে এই খাত অনেক আক্রান্ত (এফেক্টেড) হচ্ছে। তাই অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক উভয় রুটেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফ্লাইট চালুর প্রস্তাব করব আমরা। প্রয়োজনে যাত্রী ও এয়ারলাইন্স সংশ্লিষ্টদের কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। তারপরও আমরা চাই ফ্লাইট চলুক।’
করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকার ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। তাই ১৪ থেকে ২০ এপ্রিল পর্যন্ত অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধের ঘোষণা দেয় বেবিচক। পরে প্রবাসীদের বিক্ষোভের মুখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পাঁচটি দেশে ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দেওয়া হয়।
এদিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও এয়ার অ্যারাবিয়ার বিশেষ ফ্লাইটযোগে ৪৭৬ জন প্রবাসী কর্মী সৌদি আরব ও ওমান গেলেন। তাদের মধ্যে বিমানে ২৭১ জন ও এয়ার অ্যারাবিয়ায় ২০৫ জন। এদিকে গতরাত ১২টা পর্যন্ত আরও ৯টি ফ্লাইটে দেড় সহস্রাধিক যাত্রীর বিভিন্ন দেশে যাওয়ার সিডিউল রয়েছে।
করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট চলাচল বন্ধ ঘোষণা করে বেবিচক। শুধু মধ্যপ্রাচ্যে ও সিঙ্গাপুরে প্রবাসীকর্মীদের পরিবহনের জন্য বিশেষ ফ্লাইট চালু করা হয়েছে।
শনিবার থেকে ফ্লাইট চালুর কথা থাকলেও ল্যান্ডিং অনুমতি নিয়ে জটিলতার কারণে বেশ কয়েকটি ফ্লাইট বাতিল হয়। নির্ধারিত সময়ে উপস্থিত যাত্রীদের আবাসিক হোটেলে রাখা হয়। তাদের অনেকেই আজ বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও এয়ার অ্যারাবিয়ার ফ্লাইটে সৌদি ও ওমান যান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ