সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

হজ্বে স্বাস্থ্যবিধির ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে সৌদি আরব

স্টাফ রিপোর্টার : বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে এবছর হজ্বে অংশগ্রহণে ইচ্ছুক ব্যক্তিদের সেসব দেশে ভ্যাকসিন প্রয়োগ ও অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা হচ্ছে কিনা তার ওপরে গুরুত্ব দিচ্ছে সৌদি সরকার।
গত বৃহস্পতিবার মক্কায় সৌদি আরবের হজ্ব ও ওমরাবিষয়ক উপমন্ত্রী ড. আব্দুল ফাত্তাহ্ সোলায়মান মাশহাতের সঙ্গে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারীর বৈঠকের সময় সৌদি উপমন্ত্রী একথা বলেন।
দূতাবাস থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বৈঠককালে রাষ্ট্রদূত আসন্ন হজ্বের প্রস্তুতির বিষয়ে হজ্ব উপমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি অবহিত করেন যে, বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বর্তমান করোনা পরিস্থিতির হ্রাস-বৃদ্ধি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। এছাড়া বিভিন্ন দেশে করোনার ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু হওয়ায় ভ্যাকসিন গ্রহণসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন সাপেক্ষে বহির্বিশ্ব থেকে হজ্ব করার বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করা হচ্ছে। খুব শিগগিরই এ বিষয়ে সৌদি সরকারে সিদ্ধান্ত জানানো সম্ভব হবে বলে সৌদি উপমন্ত্রী উল্লেখ করেন।
দূতাবাসের বিজ্ঞপ্তিতে আরও  বলা হয়, বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের দীর্ঘদিনের বন্ধুপ্রতিম সম্পর্ক ও সহযোগিতার কথা উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত ড. পাটোয়ারী বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন এবং এই সম্পর্ক উত্তরোত্তর আরও  ঘনিষ্ঠ ও দৃঢ় হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
২০২০ সালের হজ্বে বাংলাদেশের জন্য অতিরিক্ত ১০ হাজার হজ্বযাত্রীর কোটা প্রদান এবং ২০১৯ সালে মক্কা রোড সার্ভিসের মাধ্যমে ৫০ শতাংশ হজ্বযাত্রীর সৌদি আরবের ইমিগ্রেশন ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে সম্পন্ন হওয়ায় হজ্ব উপমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান রাষ্ট্রদূত।
রাষ্ট্রদূত ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী সৌদি উপমন্ত্রী ড. আব্দুল ফাত্তাহ্ সোলায়মান মাশহাতকে জানান যে, হজ্ব ও ওমরা পালনের জন্য বাংলাদেশ থেকে প্রতি বছর বিপুল সংখ্যক হজ্বযাত্রী সৌদি আরবে আগমন করে থাকেন।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ