সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

স্বাস্থ্যবিধি মেনে রমযানের প্রথম জুমা আদায়

গতকাল শুক্রবার পবিত্র রমযানে প্রথম জুমার নামায আদায় করেন সাধারণ মুসল্লিগণ। ছবিটি গতকাল জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম থেকে তোলা -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : রমযান শুরুর সাথে সাথেই শুরু হয়েছে কঠোর লকডাউন। সেই সাথে মসজিদে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নামায আদায় করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। গতকাল রমযানের প্রথম জুমায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমসহ সারাদেশের মসজিদেই স্বাস্থ্যবিধি মেনে জুমার নামায আদায় করেছেন মুসুল্লীরা। কঠোর লকডাউনের কারণে বিভিন্ন স্থান থেকে বায়তুল মোকাররম মসজিদে নামায আদায় করতে আসতে পারেননি মুসল্লিরা। এজন্য বায়তুল মোকাররমে উপস্থিতি ছিল তুলনামূলকভাবে কম। তবে অন্যান্য মসজিদে দুরত্ব বজায় রেখে মাস্ক পরে রাস্তায় দাড়িয়েও নামায আদায় করতে দেখা গেছে।
গতকাল শুক্রবার জুমার নামাযে অন্যান্য সময়ের তুলনায় অনেক ফাঁকা ছিল মুসল্লিদের চলাফেরা ও অবস্থান। মূল চত্বর ছাড়া বারান্দা সিঁড়ি-প্রাঙ্গণসহ বিভিন্ন স্থানে খালি ছিল। অন্যান্য জুমার মতো বায়তুল মোকাররম মার্কেট চত্বর বা আশেপাশে কাতার করতে হয়নি মুসল্লিদের।
দেখা যায়, মসজিদের ভেতরে একটির পর একটি কাতার ছেড়ে মুসল্লিরা বসেছেন। এছাড়া বেশিরভাগ কাতারেই দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে হচ্ছে। অজুখানাসহ বিভিন্ন স্থানে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা ছিল। পাশাপাশি আগত মুসল্লিদের বেশির অংশকেই মাস্ক পরে মসজিদে আসতে দেখা গেছে। বেশি অংশের হাতে ছিল জায়নামাজও।
করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ আশঙ্কাজনকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় দেশের সব জুমা ও পাঁচ ওয়াক্তের নামায এবং অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে প্রার্থনার আগে ও পরে কতিপয় বিষয়ে নিরুৎসাহিত করতে শর্ত বেঁধে দিয়ে জরুরি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়।
এছাড়াও কঠোর লকডাউনের কারণে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে বায়তুল মোকাররমে এসে নামায় পড়ার সুযোগ নেই। গতকাল নামাযের আগে রাস্তায় বিভিন্ন চেকপেস্টে অপ্রয়োজনীয় চলাফেরা রোধে তল্লাশি করতে দেখা গেছে।
এছাড়া জুমা ও অন্যান্য ওয়াক্তের নামায এবং প্রার্থনার আগে এবং পরে মসজিদ ও উপাসনালয়ে সকল প্রকার সভা-সমাবেশ করা নিষিদ্ধ রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ