বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২
Online Edition

দেশে করোনায় মৃত্যু দশ হাজার ছাড়ালো 

স্টাফ রিপোর্টার : ‘সর্বাত্মক লকডাউন’র দ্বিতীয় দিন করোনায় আরও ৯৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১০ হাজার ৮১ জনে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ১৯২ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এতে দেশে এখন পর্যন্ত মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ৭ হাজার ৩৬২ জনে। 

করোনাভাইরাস নিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও উল্লেখ করা হয়, এদিন সুস্থ হয়েছেন আরও ৫ হাজার ৯১৫ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৯৭ হাজার ২১৪ জন। এর আগের দিন বুধবার দেশে আরও ৫ হাজার ১৮৫ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এছাড়া মারা যান দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ৯৬ জন।

এতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৮ হাজার ৭৭০টি, আর নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১৯ হাজার ৯৫৯টি। দেশে এখন পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে অ্যান্টিজেনসহ ৫১ লাখ ১৫ হাজার ৫৭২টি। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৮ লাখ ১১ হাজার ৪১২টি এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা করা হয়েছে ১৩ লাখ চার হাজার ১৬০টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৯৪ জনের মধ্যে পুরুষ ৬৪ জন এবং নারী ৩০ জন। এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়ে পুরুষ মারা গেলেন সাত হাজার ৪৯৯ জন এবং নারী মারা গেলেন দুই হাজার ৫৮২ জন। মারা যাওয়া ৯৪ জনের মধ্যে ষাটোর্ধ্ব ৫২ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে আছেন ২৫ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে ১৪ জন এবং ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে তিন জন ছিলেন।

বিভাগভিত্তিক বিশ্লেষণে অধিদফতর জানিয়েছে, মারা যাওয়াদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন ৬৯ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের ১২ জন, রাজশাহী বিভাগের ছয় জন, খুলনা বিভাগের তিন জন, বরিশাল বিভাগের দুই জন এবং সিলেট ও রংপুর বিভাগের একজন করে রয়েছেন। তাদের মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ৯০ জন এবং বাসায় মারা গেছেন চারজন।

২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হওয়া পাঁচ হাজার ৯১৫ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন তিন হাজার ৮২২ জন, চট্টগ্রাম বিভাগের এক হাজার ৮০০ জন, রংপুর বিভাগের আছেন ৩৫ জন, খুলনা বিভাগের ৪২ জন, বরিশাল বিভাগের ৩০ জন, রাজশাহী বিভাগের ৬৩ জন, সিলেট বিভাগের ১০৭ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগের আছেন ১৬ জন। 

এদিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত  ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে মারা গেছেন ১৩ হাজার ৫১৩ জন এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৮ লাখ ৩ হাজার ১৯৪ জন। এ নিয়ে বিশ্বে মোট করোনায় মৃত্যু হয়েছে ২৯ লাখ ৮৩ হাজার ৯০১ জনের এবং আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ কোটি ৮৮ লাখ ২০ হাজার ১৬৬ জন। এছাড়া সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১১ কোটি ১৬ লাখ ৫ হাজার ২২০ জন।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ২১ লাখ ৪৯ হাজার ২২৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৭৮ হাজার ৯২ জনের। 

অন্যদিকে করোনায় আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থান উঠে এসেছে প্রতিবেশি দেশ ভারত। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের তালিকায় দেশটির অবস্থান চতুর্থ। দেশটিতে মোট আক্রান্ত এক কোটি ৪০ লাখ ৭০ হাজার ৮৯০ জন এবং মারা গেছেন ১ লাখ ৭৩ হাজার ১৫২ জন।

এছাড়া এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে ৫১ লাখ ৪৯ হাজার ৮৩৪ জন, রাশিয়ায় ৪৬ লাখ ৬৬ হাজার ২০৯ জন, যুক্তরাজ্যে ৪৩ লাখ ৭৮ হাজার ৩০৫ জন, ইতালি ৩৮ লাখ ৯ হাজার ১৯৩ জন, তুরস্কে ৪০ লাখ ২৫ হাজার ৫৫৭ জন, স্পেন ৩৩ লাখ ৮৭ হাজার ২২ জন, জার্মানি ৩০ লাখ ৬৪ হাজার ৩৮২ জন এবং মেক্সিকোতে ২২ লাখ ৮৬ হাজার ১৩৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

অন্যদিকে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে ৯৯ হাজার ৭৭৭ জন, রাশিয়ায় এক লাখ ৪ হাজার, যুক্তরাজ্যে এক লাখ ২৭ হাজার ১৬১ জন, ইতালিতে এক লাখ ১৫ হাজার ৫৫৭ জন, তুরস্কে ৩৪ হাজার ৭৩৪ জন, স্পেনে ৭৬ হাজার ৭৫৬ জন, জার্মানিতে ৭৯ হাজার ৮১৩ জন এবং মেক্সিকোতে ২ লাখ ১০ হাজার ২৯৪ জন মারা গেছেন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ