বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২
Online Edition

এইচটি ইমামও মওদুদসহ যাদের নামে শোকপ্রস্তাব আনা হলো

 

সংসদ রিপোর্টার: করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া সিলেট-৩ আসনের সংসদ-সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরীর মৃত্যুতে সংসদে শোকপ্রস্তাব আনার পর তার জীবনের ওপর আলোচনা করা হয়েছে। এছাড়াও বিশিষ্ট অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামানের মৃত্যুতেও সংসদে শোক প্রস্তাব আনা হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার সংসদের দ্বাদশ অধিবেশন শুরুর পর তার মৃত্যুতে শোকপ্রস্তাব আনা হয়। এর আগে সকাল ১১টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের অধিবেশন শুরু হয়।

এছাড়াও প্রধানমন্ত্রীর একজন উপদেষ্টা, সাবেক একজন প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রী, সাবেক একজন প্রতিমন্ত্রী, সাবেক তিনজন সংসদ-সদস্যের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব আনা হয়।

যাদের নামে শোকপ্রস্তাব আনা হয়- প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা হোসেন তৌফিক ইমাম (এইচ টি ইমাম), সপ্তম, অষ্টম, নবম ও দশম জাতীয় সংসদের ময়মনসিংহ-১১ আসন থেকে নির্বাচিত সাবেক এমপি ও প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আমান উল্লাহ, সাবেক গণপরিষদ ও সংসদ-সদস্য ও প্রথম সংসদের তৎকালীন সিলেট-১৪ আসনের তোয়াবুর রহিম, দশম জাতীয় সংসদের সিরাজগঞ্জ-৫ আসনের সাবেক এমপি আ. মজিদ মন্ডল।

এছাড়াও তৃতীয় ও পঞ্চম জাতীয় সংসদের সাতক্ষীরা-৪ আসনের সাবেক এমপি মুনসুর আহমেদ, দ্বিতীয়, তৃতীয়, চতুর্থ, পঞ্চম ও অষ্টম জাতীয় সংসদ নোয়াখালী-৫ এবং নবম জাতীয় সংসদের বগুড়া-৭ আসনের সাবেক এমপি এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের মৃত্যুতে সংসদে শোক প্রস্তাব আনার পাশাপাশি তাদের জীবনবৃত্তান্ত সম্বলিত শোকপ্রস্তাব সংসদে উত্থাপন করেন স্পিকার। শোক প্রস্তাবের অনুলিপি উপস্থিত সব এমপিদের মধ্যে সরবরাহ করা হয়।

এছাড়াও দৈনিক জনকণ্ঠের সম্পাদক ও প্রকাশক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আতিকউল্লাহ খান মাসুদ, সিকদার গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের চেয়ারম্যান ও সংসদ সদস্য পারভীন হক সিকদারের পিতা বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নুল হক সিকদার, ভাষাসৈনিক আলী তাহের মজুমদার, দেশের খ্যাতিমান কলামিস্ট, গবেষক, প্রাবন্ধিক, সাংবাদিক ও লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ, প্রজন্ম ‘৭১-এর সাবেক সভাপতি ও জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক শাহীন রেজা নুর, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আবুল হাসনাত, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক ডেপুটি গভর্নর খ্যাতিমান ব্যাংকার খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ, শ্রম আপিল ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান, হাইকোর্ট বিভাগের প্রাক্তন বিচারপতি ও সাবেক আইন সচিব বিচারপতি মো. আব্দুল হাইয়ের নামে শোকপ্রস্তাব উত্থাপন করা হয়।

সুনামগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ-সদস্য মুহিবুর রহমান মানিকের মা জাহান আরা চৌধুরী, দেশের প্রখ্যাত মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ও প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এ বি এম আবদুল্লাহ’র সহধর্মিণী ও তেজগাঁও কলেজের সমাজকল্যাণ বিভাগের সাবেক অধ্যাপক মাহমুদা বেগম, বাংলাদেশের চলচ্চিত্র ও টেলিভিশনের প্রবীণ অভিনেতা, পরিচালক, চিত্রনাট্যকার, সংলাপকার ও গল্পকার এটিএম শামসুজ্জামান, বিশিষ্ট অভিনেতা, নাট্য পরিচালক ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মুজিবুর রহমান দিলু এবং মার্কিন মিশনারি ও নটরডেম কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ফাদার জেএস পিশোতো’র মৃত্যুতে সংসদে গভীর শোক প্রকাশ করা হয়।

সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব মো. দেলোয়ার হোসেন, অফিস সহায়ক মো. রুহুল আমিন এবং দৈনিকভিত্তিক অফিস সহায়ক মো. মিজানুর রহমান মারা গেছেন। তাদের জীবনবৃত্তান্ত সম্বলিত শোকপ্রস্তাব সংসদে উত্থাপন করা হয়।

এছাড়া প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশ-বিদেশে যেসব চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, প্রশাসন-পুলিশের সদস্য, রাজনৈতিক নেতা, গণমাধ্যমকর্মী, ব্যবসায়ী ও সমাজের গণ্যমান্য ব্যক্তি এবং অন্যান্য সরকারি-বেসরকারি কর্মচারী মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের মৃত্যুতে সংসদে গভীর শোক প্রকাশ করা হয়।

আর রাজশাহীর কাটাখালীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৭ জন পীরগঞ্জবাসী, দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থানে দুর্ঘটনায় হতাহতদের স্মরণে জাতীয় সংসদ গভীর শোক প্রকাশ করে সকল বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জ্ঞাপন করে।

এ সময় স্পিকার জানান, উত্থাপিত শোকপ্রস্তাবগুলো ব্যতীত যদি কোনো বিশিষ্ট ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গের নাম বাদ পড়ে থাকে, তবে তার বা তাদের নাম ও সংক্ষিপ্ত জীবনবৃত্তান্ত সংসদ সচিবালয়ে পৌঁছে দিলে তা পরবর্তীতে শোকপ্রস্তাবে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য বিবেচনা করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ