শনিবার ০৮ মে ২০২১
Online Edition

জুলুম-নিপীড়ন চালিয়ে ক্ষমতা দীর্ঘায়িত করা যাবে না -মিয়া গোলাম পরওয়ার

সারাদেশে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর অর্ধশতাধিক নেতা-কর্মীকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল ও সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার গতকাল বুধবার বিবৃতি দিয়েছেন।
বিবৃতিতে তিনি বলেন, জাতি যে মুহূর্তে স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন করছে, ঠিক সেই মুহূর্তে জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে গ্রেফতার অভিযান পরিচালনা খুবই দুঃখজনক। সরকার রাজশাহী, সিলেট, শরীয়তপুর ও ফেনী থেকে জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের প্রায় অর্ধশতাধিক নেতা ও কর্মীকে গ্রেফতার করেছে। জামায়াতে ইসলামীর গঠনমূলক কাজকে বাধাগ্রস্ত করতে নেতা-কর্মীদেরকে পুলিশ অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করছে ও তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করছে। তিনি এই গ্রেফতার করার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।
তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী একটি নিয়মতান্ত্রিক, গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল। দেশের সংবিধান সকল রাজনৈতিক দলকে দলীয় কার্যক্রম পরিচালনা করার অধিকার দিয়েছে। তাই নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করে এবং দলীয় কার্যক্রমে বাধা দিয়ে সরকার অসাংবিধানিক কাজ করেছে। সরকার একেরপর এক সংবিধান লংঘন করে যাচ্ছে ও গণতন্ত্রকে মারাত্মকভাবে বিপর্যস্ত করছে এবং দলীয় সন্ত্রাসীদের দ্বারা সারা দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি করছে। সরকার পরিকল্পিতভাবে দেশে সন্ত্রাসী পরিবেশ তৈরি করে জামায়াতে ইসলামীর নেতা-কর্মীদেরকে এবং ইসলাম প্রিয় মানুষকে গণহারে গ্রেফতার করছে। আমি সরকারকে বলব, জুলুম-নিপীড়ন চালিয়ে ক্ষমতা দীর্ঘায়িত করা যাবে না। জুলুম-নিপীড়ন বন্ধ করুন।
গণতন্ত্র হরণকারী স্বৈরাচার সরকারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার জন্য তিনি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানান। সেই সাথে জুলুম-নিপীড়ন বন্ধ করে জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের গ্রেফতারকৃত সকল নেতা-কর্মীকে অবিলম্বে মুক্তি দেয়ার জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট মহলের প্রতি আহ্বান জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ