ঢাকা, রোববার 26 September 2021, ১১ আশ্বিন ১৪২৮, ১৮ সফর ১৪৪৩ হিজরী
Online Edition

ঢাবির অনলাইন ভর্তিপ্রক্রিয়া আজ আবার শুরু, ২ দিনে ১ লাখের বেশি আবেদন 

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: কারিগরি জটিলতার কারণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষায় অনলাইন আবেদন প্রক্রিয়া গত বৃহস্পতিবার বেলা পৌনে ১ টা থেকে বন্ধ রাখা হয়েছে। 

আজ রোববার পর্যন্ত এই প্রক্রিয়া বন্ধ থাকবে। রোববার রাত থেকে আবারও অনলাইনে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন শিক্ষার্থীরা। ভর্তিপ্রক্রিয়া কয়েক দিন বন্ধ থাকায় সময় বাড়ানো হবে বলে জানা গেছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনলাইন ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটারবিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক মো. মোস্তাফিজুর রহমান গণমাধ্যমকে এসব তথ্য জানিয়েছেন। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই আবেদন প্রক্রিয়ার শুরুর দিন থেকেই ওয়েবসাইটের কারিগরি সমস্যার কথা জানিয়ে আসছিলেন ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের অনেকে।

২১ মে বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ক ইউনিট, ২২ মে কলা অনুষদভুক্ত খ ইউনিট, ২৭ মে ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত গ ইউনিট, ২৮ মে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ঘ ইউনিট ও ৫ জুন চারুকলা অনুষদভুক্ত চ ইউনিটের বহুনির্বাচনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে আর অঙ্কন পরীক্ষা হবে ১৯ জুন। প্রতিটি ইউনিটের পরীক্ষা বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনলাইন ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, এবার আবেদনপ্রক্রিয়ার শুরুর দিকেই আগের চেয়ে অনেক গুণ বেশি আবেদন পড়েছে। প্রথম দিকে এত আবেদন আগে কখনো পড়েনি। প্রথম ৪৮ ঘণ্টায় ৫ ইউনিটে মোট ১ লাখ সাড়ে ৫ হাজার আবেদন জমা পড়েছে। ফলে, ওয়েবসাইটের বেশ চাপ পড়েছে। এ কারণেই মূলত এ অবস্থা তৈরি হয়েছে। গতবার ৫ ইউনিটে ২ লাখ ৭০ হাজার আবেদন পড়েছিল। এবার হয়তো পাসের হার বেশি, এবার সাড়ে ৩ লাখ হতে পারে।

২ দিনে ১ লাখের বেশি আবেদন জমা পড়েছে

ভর্তি কমিটির আহ্বায়ক মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘আজ বেলা পৌনে ১ টা থেকে আমরা আবেদন প্রক্রিয়াটি বন্ধ রাখছি। ওয়েবসাইটে এখন যে রিসোর্স আছে, তাতে একই সঙ্গে সাড়ে ৪ হাজার জন ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করতে পারেন। আগামী ৩ দিনে ওয়েবসাইটের সক্ষমতা বাড়ানো হবে। একই সময়ে (অ্যাট এ টাইম) অন্তত ১২ হাজার জন যাতে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে তাদের আবেদনপ্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে পারেন, সে জন্য রিসোর্স বাড়ানো হবে। বিভিন্ন বিভাগ থেকে রিসোর্সগুলো আনা হচ্ছে, এগুলো কনফিগার করে রোববার রাত থেকে আবার আবেদন গ্রহণ করা হবে। মার্চ মাস পর্যন্ত আবেদনের সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছিল।

এখন কারিগরি জটিলতার কারণে যে সময়টুকু নষ্ট হচ্ছে, এপ্রিল মাসে সেই সময়টুকু আমরা যুক্ত করে দেব। তিনি আরও বলেন, যাদের আবেদনে কোনো ভুল হয়েছে, সেগুলো সংশোধনের উপায়ও আসছে। আগে তদন্ত করে আমরা ভুলগুলো শনাক্ত করছি। আশা করি, ওয়েবসাইটের সক্ষমতা বাড়ালে আর সমস্যা থাকবে না। এ ছাড়াও কোনো শিক্ষার্থীর আবেদনে কোনো ধরনের সমস্যা শনাক্ত হলে শিক্ষার্থীদের ফোন করে আমরা যাচাই করে নেব।

ইন্টারনেটর সুবিধাসংবলিত কম্পিউটার থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাডমিশন ওয়েবসাইটের (https://admission.eis.du.ac.bd) মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন।

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ