শনিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২১
Online Edition

ক্রাইস্টচার্চে আবারও হামলার হুমকি 

স্পোর্টস রিপোর্টার :  দু-বছর আগে ১৫ মার্চ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের আল নূর ও লিনউড ইসলামিক সেন্টারে করা হয় ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলা। সে সময় যেখানে জুমআর নামাজ আদায় করতে যাচ্ছিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। অল্পের জন্য সরাসরি সেই হামলার মুখে পড়েননি তামিম-মুশফিকরা। তখন টেস্ট সিরিজের শেষ ম্যাচ না খেলেই বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে ফিরে আসতে হয়েছিল দেশে। আগামী ১৫ মার্চ সেই হামলার দুই বছর পূরণ হবে। নিউজিল্যান্ডের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবর, দুই বছর পূর্তিতে আবারও সেই দুই মসজিদে হামলার হুমকি দেয়া হয়েছে। তবে এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করার আগেই দুই সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে আটক করেছে নিউজিল্যান্ড পুলিশ। তাদের নামধাম কিংবা হামলার পরিকল্পনার বিষয়ে কিছু জানায়নি পুলিশ। এই খবর বাইরে আসার পর স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন চলে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ব্যাপারে। কারণ বাংলাদেশ ক্রিকেট দল এখন ক্রাইস্টচার্চেই অবস্থান করছে। গত ২৪ ফেব্রুয়ারি নিউজিল্যান্ড পৌঁছে ক্রাইস্টচার্চের শ্যাডো বাই পার্ক হোটেলে কোয়ারেন্টাইন করছে বহরের সবাই। আগামী ১০ মার্চ কোয়ারেন্টাইন শেষে তারা চলে যাবে কুইন্সটাউনে। তবে স্বস্তির খবর হলো, এসব থেকে দূরেই আছে জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা। দলের সঙ্গে টিম লিডার হিসেবে যাওয়া বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস নিশ্চিত করেছেন, ক্রাইস্টচার্চে আবারও হামলার হুমকি কিংবা নর্থ আইল্যান্ডে পরপর তিনটি ভূমিকম্পের খবরে চিন্তিত নয় বাংলাদেশ দল। কেননা তাদেরকে পুরোপুরি সেনা তত্ত্বাবধানে কড়া নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে রাখা হয়েছে। এছাড়া নিউজিল্যান্ড সরকার কিংবা ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকেও কোনো সতর্কতা বা চিন্তার কিছু জানানো হয়নি বাংলাদেশ দলকে। তাই এখনও পর্যন্ত নিশ্চিন্তেই আছে টাইগাররা। গতকাল জালাল ইউনুস বলেছেন, ‘আমাদেরকে নিউজিল্যান্ড সরকার বা ক্রিকেট বোর্ড থেকে এ ব্যাপারে কিছুই জানানো হয়নি। আমরা এ ব্যাপারে কিছু জানি না।’ নিরাপত্তার বিষয়ে অভয় দিয়ে তিনি আরও বলেন,‘আমরা এখন যেখানে আছি সেটা অনেক বেশি নিরাপত্তাবেষ্টিত। এই জায়গাটি পুরোপুরি আর্মি নিয়ন্ত্রিত। যেহেতু নিউজিল্যান্ড সরকার বা ক্রিকেট বোর্ডের কাছ থেকে আমাদের সে অর্থে কিছু জানানো হয়নি, তাই আমরা খুব একটা চিন্তিত নই। এখানে আমরা ভালো অবস্থায় আছি। এখনও পর্যন্ত শঙ্কা ও উদ্বিগ্ন হওয়ার মতো কিছুই ঘটেনি।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ