শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

জিয়াউর রহমানের নাম মানুষের হৃদয় থেকে মুছে ফেলা যাবে না   -নজরুল ইসলাম খান

 

 

ইমরান কবীর, ময়মনসিংহ সংবাদদাতা : জিয়াউর রহমানের নাম বিমানবন্দর থেকে মুছে ফেলা যাবে কিন্তু মানুষের হৃদয় থেকে মুছে ফেলা যাবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন ময়মনসিংহ বিভাগীয় সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন জিয়াউর রহমানের বীরউত্তম খেতাব বাতিলের জন্য বর্তমান সরকারের জামুকা যে অপচেষ্টা করছে তা কখনোই বাংলার সাধারণ জনগণ মেনে নিবে না, এই জামুকা কারা গঠন করেছিল, আমরা গঠন করেছি ২০০২ সালে। মুক্তিযোদ্ধাদের খাটো করে দেখবেন না। মুক্তিযুদ্ধে মেজর জিয়াউর রহমানের ভূমিকা ছিল অপরিসীম। তিনি বলেন খন্দকার মোশতাক মার্শাল ল করেন, জিয়াউর রহমান মার্শাল ল করেন নাই। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে মিথ্যা বলবেন না, ইতিহাসকে মিথ্যা বলে জনগণকে ক্ষতিগ্রস্ত করে দেশকে ক্ষতির মুখে ফেলবেন না। তিনি বলেন মানুষের কিছু ব্যর্থতা থাকতে পারে কিন্তু তার সফলতাকে মূল্যায়ন করবেন। তিনি বলেন, আমি কেন বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে সমালোচনা করবো আমি কি তার সমসাময়িক, না কখনোই না, কিন্তু জিয়াউর রহমানের কথা আওয়ামী লীগের একজন কর্মী সমালোচনা করে এটা কি ঠিক। তিনি বলেন, আমরা কি স্বাধীনতার ৫০ বছরে এই দেশকে সঠিকভাবে উন্নতির দিকে নিয়ে জেতে পেরেছি। তিনি বলেন, ইতিহাস তৈরি একজন নেতার মাধ্যমে হয় না, এখানে অনেকেরই ভূমিকা থাকে। কিন্তু অন্য যারা ভূমিকা রেখেছে বর্তমানে তাদের ভূমিকা প্রশ্নবিদ্ধ কেন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন ময়মনসিংহ বিভাগীয় সমন্বয় কমিটির আয়োজনে নগরীর আল-বারাকা কনভেনশন সেন্টারে মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে ময়মনসিংহ বিভাগের সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি এ সব কথা বলেন। মতবিনিময় সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন মিডিয়া কমিটির আহ্বায়ক ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুর সভাপতিত্বে ও কিশোরগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি শরিফুল আলম এর সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপার্সন উপদেষ্টা কাউন্সিল সদস্য ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ফরিদপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক স্যামা উবায়েদ। এ সময় স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন মিডিয়া কমিটির সদস্য ফারজানা শারমিন পুতুল, মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যাপক শফিকুল ইসলাম, জেলা দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক ডা: মাহবুবুর রহমান লিটন, জেলা দক্ষিণ বিএনপির প্রথম যুগ্ম আহ্বায়ক জাকির হোসেন বাবলু, মহানগর বিএনপির প্রথম যুগ্ম আহ্বায়ক আবু ওয়াহাব আকন্দসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ